সুজলা-সুফলা শস্য-শ্যামলা এই দেশে যুগে যুগে পা পড়েছে ভিনদেশিদের। কোনো কোনো জাতিগোষ্ঠীর রয়েছে দীর্ঘ শাসন পরিক্রমা ও ব্যবসা-বাণিজ্যের সংযুক্তি। তাদের অনেককেই সমাহিত করা হয়েছে এ ভূখণ্ডে। এভাবে গড়ে ওঠে বিভিন্ন সমাধিক্ষেত্র দেশজুড়ে। দেশের ৬৪ জেলার প্রায় সব জায়গাতেই রয়েছে খ্রিষ্টান সমাধিস্থল। সিলেট বিভাগের বিভিন্ন চা বাগানেও রয়েছে ব্রিটিশ শ্রমিকদের সমাধি।

এসব সমাধি নিয়ে তথ্যচিত্র তৈরি করেছেন হেরিটেজ ট্রাভেলার এলিজা বিনতে এলাহী। গত সোমবার আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের কনফারেন্স হলে ৩০ মিনিটের এ তথ্যচিত্রের প্রিমিয়ার শো 'টমস :টি প্লান্টার্স সিমেট্রিজ ইন সিলেট' প্রদর্শন করা হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন পর্যটন করপোরেশনের উপপরিচালক রাহনুমা সালাম খান, সাবেক অতিরিক্ত সচিব জালাল আহমেদ, যুগ্ম সচিব শেখ মোমেনা মনি, পুলিশের ডিআইজি রুহুল আমিন শিপার, দীপ্ত টিভির সিইও ফুয়াদ চৌধুরী, চা পরামর্শক আশরাফ আহমেদ, সাবেক অতিরিক্ত সচিব আখতারুজ্জামান খান, সাংবাদিক মাহমুদ হাফিজ. অধ্যাপক খন্দকার মুহম্মদ শরীফুল হুদা, প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক তানিয়া সুলতানা, স্থাপত্য বিভাগের ফারহানা শারমিন ইমু প্রমুখ।

রাহনুমা সালাম বলেন, হেরিটেজ ট্রাভেলার এলিজা আমাদের অহংকার। তাঁর কাজে সবার সহযোগিতা করা উচিত। তিনি জানান, বিটিভিতে টি ট্যুরিজম নিয়ে প্রামাণ্যচিত্র করার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।