গাড়ি ভাড়ার ব্যবসা ও ভুয়া কাগজে একই গাড়ি বিভিন্নজনের কাছে বিক্রির অভিযোগে গ্রেপ্তার ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেনের দেওয়া তথ্যে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আরও ২০টি গাড়ি উদ্ধার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। এর আগে ২১ সেপ্টেম্বর কুমিল্লার মেঘনা উপজেলা থেকে দুটি মাইক্রোবাসসহ তাঁকে গ্র্রেপ্তার করা হয়।

বৃহস্পতিবার ঢাকার মিন্টো রোডে পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ডিবির প্রধান ও অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

তিনি বলেন, গত ৭ সেপ্টেম্বর জাকিরের বিরুদ্ধে মুগদা থানায় একটি প্রতারণা মামলা করেন এক ভুক্তভোগী। এর পর ডিবির তেজগাঁও বিভাগের ছায়া তদন্তে দেখা যায়, একটি গাড়ির রেজিস্ট্রেশন নম্বর দেখিয়ে জাকির ৩৭ জনের কাছে বিক্রি করেছেন।

ডিবির প্রধান আরও বলেন, মূলত বন্দর থেকে অল্প দামে গাড়ি কিনে দেওয়ার কথা বলে বিভিন্নজনের কাছ থেকে টাকা নিতেন জাকির। এর পর সেসব গাড়ি 'রেন্ট-এ-কার' ব্যবসার নামে মাসিক ভাড়ায় পরিচালনা করার চুক্তি করতেন। কয়েক মাস ভাড়া পরিশোধ করার পর ভাড়া দেওয়া বন্ধ করে দিতেন এবং গাড়ি কেনার টাকা আত্মসাৎ করতেন।