সাড়ে সাত লাখ টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকায় রাজশাহীর পুঠিয়া পৌরসভার সড়কবাতির বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। তবে মেয়র বলছেন, এই বকেয়া তার সময়ের নয়। সাবেক মেয়রের সময়ের বকেয়া তিনি পরিশোধ করবেন না। 

নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ (পুঠিয়া জোন) এর অধিনে পুঠিয়া পৌরসভায় তিনটি বিদ্যুৎ সংযোগ রয়েছে। এর মধ্যে পৌরসভার দপ্তর ও সড়ক বাতির জন্য আলাদা সংযোগ নেওয়া হয়। গত কয়েকমাসে এই তিনটি সংযোগ মিলে মোট বকেয়া বিলের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

নাটোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম ইয়াকুব আলী শেখ সমকালকে বলেন, ‘পৌরসভার বকেয়া বিল সাড়ে ৭ লাখ টাকা। বিল পরিশোধের জন্য পৌরসভা কর্তৃপক্ষকে কয়েকবার অবগত করেছি। কিন্তু তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। একারনে পৌরসভার অফিসেরর সংযোগ রেখে সড়ক বাতির লাইন বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পুঠিয়া পৌরসভার মেয়র আল মামুন খান বলেন, ‘অফিসের সংযোগ আছে। শুধু সড়ক বাতির সংযোগ কাটা হয়েছে। বকেয়া সাড়ে সাত লাখ টাকা সাবেক মেয়র রবিউল ইসলাম রবির আমলের। যাই হোক না কেন, তার বকেয়া আমি পরিশোধ করবো না। এটা জনগণ বুঝে নিক। আমার করার কিছু নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘সাবেক মেয়র ছিলেন আওয়ামী লীগের। তিনি কোনো টাকা রেখে যাননি। কর্মচারীদের বেতনও বকেয়া ছিলো। আমি বিএনপির মেয়র। তার দায়িত্ব আমি নেব না।’