ঘানার বিপক্ষে জয়ে আসর শুরু করেছিল পর্তুগাল। সোমবার রাতের ম্যাচে দু'বারের চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ের বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছে পর্তুগিজরা। ব্রুনো ফার্নান্দেজ জোড়া গোল করেছেন। তার পায়ে ভর করে 'এইচ' গ্রুপের প্রথম দল হিসেবে শেষে ষোলোয় নাম তুলেছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল।

লুসাইল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচ প্রথমার্ধে গোলশূন্য থাকে। পর্তুগাল ম্যাচের সেরা দল হিসেবে একাধিক আক্রমণ করলেও জালে বল পাঠাতে পারেনি। উরুগুয়েও সুযোগ হারায়। দ্বিতীয়ার্ধের ৫৪ মিনিটে লিড নেয় ২০১৬ আসরে ইউরো জেতা পর্তুগাল। 

ব্রুনো ফার্নান্দেজের দেওয়া লম্বা ক্রস লাফিয়ে হেড দেওয়ার চেষ্টা করেন রোনালদো। খালি চোখে তার মাথায় লেগেই গোল বলে মনে হয়েছিল। এমনকি রোনালদো গোল উদযাপনও শুরু করেন। কিন্তু রিপ্লেতে দেখা যায় সিআরসেভেনের সঙ্গে বলের সংযোগ হয়নি। গোলটি তাই ব্রুনো ফার্নান্দেজের নামের পাশে যোগ হয়েছে। 

এরপর যোগ করা সময়ে ব্রুনো ফার্নান্দেজ নিজের ও দলের দ্বিতীয় গোলটি করেন। পেনাল্টি থেকে গোল করে শেষদিকে উরুগুয়ের একের পর এক আক্রমণে উঠে গোল করে সমতায় ফেরার সুযোগ শেষ করে দেন। ওই গোল নিয়েও আছে নাটকীয়তা। হ্যান্ড বলের জন্য ভিএআর চেক করে পেনাল্টি দেওয়া হলেও উরুগুয়ের খেলোয়ড়রা তা মানতে পারেনি। 

ম্যাচের শেষ বাঁশির ঠিক আগে ব্রুনো ফার্নান্দেজ হ্যাটট্রিক করার একেবারে প্রান্তে পৌঁছে গিয়েছিলেন। কিন্তু তার নেওয়া শট বারে লেগে ফিরে আসে। পর্তুগিজদের বিপক্ষে হেরে উরুগুয়ের শেষ ষোলোর সমীকরণ কঠিন হয়ে গেল। শেষ ম্যাচে ঘানার বিপক্ষে তাদের জিততেই হবে। ড্র করলেও নিতে হবে বিদায়। অন্যদিকে পর্তুগালের বিপক্ষে দক্ষিণ কোরিয়ার হার প্রত্যাশা করতে হবে।