বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকল্পের উত্তরা অংশে গার্ডার দুর্ঘটনার জন্য দায়ীদের অবশ্যই শাস্তি হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন বিদায়ী চীনা রাষ্ট্রদূত লি জি মিং।

এ বিষয়ে দ্রুত যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশা করেন তিনি। এ ধরনের দুর্ঘটনা আর যাতে না ঘটে, সে জন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদার করা প্রয়োজন বলে মনে করেন রাষ্ট্রদূত।

সোমবার পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন রাষ্ট্রদূত। পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর অফিসে সাক্ষাৎ করেন তিনি।

গত ১৫ আগস্ট বিআরটি প্রকল্পের উত্তরার জসীমউদ্‌দীন রোড অংশে গার্ডার ভেঙে পড়ে একটি গাড়ির ওপর। এতে শিশুসহ একই পরিবারের পাঁচজন নিহত হন। নিহত ফাহিমা আক্তার ও ঝর্ণা আক্তারের ভাই আফরান মণ্ডল বাবু উত্তরা থানায় চায়না গ্যাঝুবা গ্রুপ করপোরেশনের (সিজিজিসি) বিরুদ্ধে মামলা করেন।

চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশে তিন বছর চার মাস দায়িত্ব পালন শেষে খুব ভালো অভিজ্ঞতা নিয়ে দেশে ফিরছেন। বাংলাদেশে উন্নয়নমূলক কাজের সঙ্গে চীন ভবিষ্যতেও থাকবে বলে তিনি প্রতিশ্রুতি দেন।

এ সময় পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, চীন সব সময় বাংলাদেশের উন্নয়নকাজে সহযোগিতা দিয়েছে। চীন চায়, বাংলাদেশে আরও উন্নয়নমূলক কাজ হোক। মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ সব দেশের সঙ্গেই বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে গুরুত্ব দেয়।