গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে চলতি বছর দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২৫৮ জন। ২০০০ সালে দেশে ডেঙ্গু আসার পর এটাই এক বছরে সর্বোচ্চ মৃত্যু। এর মধ্যে ১৫৮ জন ঢাকা মহানগরীতে এবং ঢাকার বাইরে ১০০ জন।

একই সময় ডেঙ্গু আক্রান্ত ২৬৯ রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। নতুন আক্রান্তসহ বর্তমানে দেশের সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো এক হাজার ২২৭ জন।

মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ২৬৯ জনের মধ্যে ঢাকার বাসিন্দা ১৩৪ জন এবং ঢাকার বাইরে ১৩৫ জন। নতুন ২৬৯ জনসহ বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি থাকা ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২২৭ জন। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৭১৯ জন এবং ঢাকার বাইরে ৫০৮ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, চলতি বছরে ১ জানুয়ারি থেকে ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ৫৯ হাজার ১৯৬ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ৩৭ হাজার ৫২৪ জন ঢাকায় এবং ২১ হাজার ৬৭২ জন ঢাকার বাইরের। আর সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৫৭ হাজার ৭১১ জন।

প্রসঙ্গত, গত নভেম্বরে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ১৯ হাজার ৩৩৪ জন। ওই মাসে সর্বোচ্চ ১১৩ জনের মৃত্যু হয়। এর আগে অক্টোবরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছিল ২১ হাজার ৯৩২ জন এবং মারা গেছেন ৮৬ জন।