ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দলের সদস্যপদ থেকে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ শাখার মার্কেটিং বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক মিজানুর রহমানকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়েছে। বুধবার ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদে দলের সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

জানা গেছে, গত ২৪ নভেম্বর অনুষদের সভায় দলের একজন শিক্ষকের সঙ্গে অধ্যাপক মিজানের কথা কাটাকাটি হয়। এই ঘটনার জেরে লিখিত অভিযোগ করেন ওই শিক্ষক। এর পরিপ্রেক্ষিতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এবিষয়ে জানতে চাইলে অধ্যাপক মিজানুর রহমান সমকালকে বলেন, ‘সেখানে আমার বক্তব্য শোনা হয়নি। আমার বিরুদ্ধে কী অভিযোগ ছিল বা কী কারণে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো, কিছুই জানি না।’

তিনি আরও বলেন, ‘মার্কেটিং বিভাগের জার্নাল সম্পর্কিত বিষয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ বি এম শহীদুল ইসলামের সঙ্গে আমার মনোমালিন্য হয়, এটির সমাধানও হয়। পরে আমি চারদিনের সফরে কানাডা যাই। এসময় শহীদুল ইসলাম বিষয়টি জানিয়ে সাদা দল ব্যবসায় অনুষদ শাখার কাছে লিখিত অভিযোগ দেন। সফরে থাকাকালে তড়িঘড়ি করে আমাকে সাদা দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।’

তিনি বলেন, ‘গত ১ অক্টোবর এ বি এম শহীদুল ইসলাম তার অভিযোগ লিখিতভাবে প্রত্যাহার করে নেন।’ কিন্তু প্রত্যাহারের পর সেটি এতদিনেও সুরাহা করা হয়নি। এবিষয়ে আমি গত সভায় জানাতে গিয়েছি। কিন্তু কিছু শিক্ষক সেখানে অশোভন আচরণ করেছেন।'

এবিষয়ে সাদা দলের ব্যবসায় অনুষদ শাখা আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম জাহিদ বলেন, ‘সাধারণ সভায় সর্বসম্মতিক্রমে তাকে বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়েছে।’ অধ্যাপক মিজানুরের আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তার প্রয়োজন পড়েনি।’

বিশ্ববিদ্যালয় সাদা দলের আহ্বায়ক অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, ‘বিষয়টি ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ আমাকে জানিয়েছে। কেন্দ্রীয় কমিটিতে আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’