নয়াপল্টনে গতকাল পুলিশ বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের পর আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে সরব অবস্থানে রয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

রাজধানী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে অবস্থান ও মহড়া দিতে দেখা গেছে কেন্দ্রীয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল ইউনিট ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের। 

আজ সকাল সাড়ে আটটায় ঢাবির মধুর ক্যান্টিন প্রাঙ্গণে উপস্থিত হন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পরে বিভিন্ন দলে ভাগ হয়ে ক্যাম্পাসের টিএসসি এলাকা, শাহবাগ, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, পলাশী চত্বর এলাকাসহ বিভিন্ন পয়েন্টে তারা মহড়া দেন। 

নয়াপল্টনে সংঘর্ষের পর সরব অবস্থানে ছাত্রলীগ। 

এ সময় শাহবাগ প্রজন্ম চত্বরে অবস্থান নেয় ঢাবির জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পলাশী গোল চত্বরের পাশে অবস্থান নেয় সলিমুল্লাহ মুসলিম হল ছাত্রলীগ। শহীদ মিনার এলাকায় অবস্থান নেয় জসীম উদ্দিন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। দোয়েল চত্বরে অবস্থান নেয় ড. মুহাম্মদ শহিদুল্লাহ হল ছাত্রলীগ, ফজলুল হক হল ছাত্রলীগ ও অমর একুশে হল ছাত্রলীগ, নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেয় শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক ছাত্রলীগ। 

কোনো প্রকার ‘অপশক্তি’ ক্যাম্পাসে ঢুকতে চাইলেই তারা দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন।

নয়াপল্টনে সংঘর্ষের পর সরব অবস্থানে ছাত্রলীগ। 

এ ছাড়া ধানমন্ডির বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পদপ্রত্যাশী নেতৃবৃন্দ। 

নয়াপল্টনে সংঘর্ষের পর সরব অবস্থানে ছাত্রলীগ/ ছবি- সমকাল। 

এ বিষয়ে ঢাবি ছাত্রলীগের সদ্যবিদায়ী সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াতের অগ্নিসন্ত্রাস ও নাশকতার প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে আমরা ঐক্যবদ্ধ। জনগণকে ভয় দেখিয়ে যারা হত্যার রাজনীতি কায়েম করতে চায়, তাদের এই বাংলার মাটি থেকে মূলোৎপাটন করতে হবে।’