টানা দ্বিতীয় দিনের মতো সবচেয়ে দূষিত শহরের তালিকায় শীর্ষ রয়েছে ঢাকা। শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে ঢাকার এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স (একিউআই) রেকর্ড করা হয়েছে ১৯৩, যা বাতাসের মান অনুসারে ‘অস্বাস্থ্যকর’ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবারও রাজধানী ঢাকা বায়ুদূষণে প্রথম স্থানে ছিল।

একিউআই স্কোর অনুযায়ী, বিশ্বের দূষিত শহরের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চিলির রাজধানী সান্তিয়াগো (১৮২)। আর তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারতের মুম্বাই (১৭৮)। একই স্কোর নিয়ে দেশটির আরেক শহর দিল্লি চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে।

১৭৫ স্কোর নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছে পোল্যান্ডের শহর ক্রাকো। এরপর ষষ্ঠ ও সপ্তম স্থানে রয়েছে যথাক্রমে পাকিস্তানের লাহোর (১৬৮) এবং নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু (১৬৫)।

সুইজারল্যান্ডভিত্তিক বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আইকিউ এয়ার দূষিত বাতাসের শহরের এ তালিকা প্রকাশ করে। একিউআই স্কোর শূন্য থেকে ৫০ ভালো হিসেবে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ ‘মাঝারি’ হিসেবে গণ্য করা হয়।

বাতাসের মান অনুসারে ১০১ থেকে ২০০ এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য ‘অস্বাস্থ্যকর’ বলে মনে করা হয়। আর ২০১ থেকে ৩০০ এর মধ্যে থাকা একিউআই স্কোরকে ‘খুব অস্বাস্থ্যকর’ বলা হয়। ৩০১ থেকে ৪০০ এর মধ্যে থাকা একিউআইকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ হিসেবে বিবেচিত হয়, যা বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি করে।

এ বছরের জানুয়ারিতে সবচেয়ে বেশি দিন দুর্যোগপূর্ণ বায়ুর মধ্যে কাটিয়েছে নগরবাসী। ওই মাসে মোট ৯ দিন রাজধানীর বায়ুর মান দুর্যোগপূর্ণ ছিল, যা গত সাত বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ।

বাংলাদেশে একিউআই নির্ধারণ করা হয় দূষণের পাঁচটি বৈশিষ্ট্যের ওপর ভিত্তি করে। এগুলো সেগুলো হল-বস্তুকণা (পিএম১০ ও পিএম২.৫), এনও২, সিও, এসও২ এবং ওজোন (ও৩)।