স্বল্পোন্নত দেশগুলোর ঋণ মওকুফ করুন

বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফের প্রতি ওআইসি

প্রকাশ: ২৩ এপ্রিল ২০২০     আপডেট: ২৩ এপ্রিল ২০২০       প্রিন্ট সংস্করণ

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

কভিড-১৯-পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলায় স্বল্পোন্নত দেশগুলোর জন্য সহজশর্তে ঋণপ্রাপ্তি ও ঋণ মওকুফ করতে বিশ্বব্যাংক, আইএমএফ, দ্বিপক্ষীয়, বহুপাক্ষিক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ইসলামী সহযেগিতা সংস্থা (ওআইসি)।
করোনা সংকট মোকাবিলায় জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সহযোগিতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কর্মপন্থা নির্ধারণ ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য গতকাল বুধবার ওআইসির নির্বাহী কমিটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বিশেষ সভায় উপরোক্ত আহ্বান জানানো হয়।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এই সভায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন। স্বাগত বক্তব্যে ড. মোমেন এই মহামারি মোকাবিলায় ইসলামের চিরায়ত আদর্শ ও মুসলিম ভ্রাতৃত্ববোধ থেকে উৎসারিত সমন্বিত প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান।
চিকিৎসাবিজ্ঞান এবং সরঞ্জামাদি নিয়ে যেসব গবেষণা প্রতিষ্ঠান কাজ করে তাদের করপোরেট প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে একত্রিত করে এই মুহূর্তে অতি প্রয়োজনীয় জীবন রক্ষাকারী সামগ্রী তৈরি করার কাজে লাগাতে ওআইসি সচিবালয় এবং অঙ্গসংগঠনগুলোকে বাংলাদেশ আহ্বান জানায়।
অভিবাসী শ্রমিক, বিশেষ করে মধ্যপ্রাচ্য ও ওআইসিভুক্ত দেশে যেসব মুসলিম শ্রমিক কাজ করছে তাদের কর্মসংস্থান নিশ্চিত রাখার আহ্বান জানান। যাতে তারা বিপদে না পড়েন। ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রগুলোয় স্বেচ্ছায় অনুদান প্রদানের মাধ্যমে একটি কভিড-১৯ রেসপন্স অ্যান্ড রিকভারি ফান্ড গঠনে এই সভায় বাংলাদেশ একটি প্রস্তাবনা পেশ করে। মুসলিম অভিবাসীদের সুরক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় আর্থিক ও চিকিৎসা সহায়তা প্রদান এবং তাদের চাকরি রক্ষার ব্যবস্থা করার জন্য মানবাধিকার সংগঠনগুলোকে নিয়ে কাজ করার জন্য ওআইসি সচিবালয়কে বাংলাদেশ পরামর্শ দেয়।
বাংলাদেশ, তুরস্ক, সৌদি আরব, গাম্বিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং নাইজার- এই ছয়টি সদস্য রাষ্ট্র নিয়ে ওআইসির বর্তমান নির্বাহী কমিটি গঠিত। এই ছয়টি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বা সমপর্যায়ের প্রতিনিধি ও ওআইসি মহাসচিবের অংশগ্রহণে নির্বাহী কমিটির এই বিশেষ বৈঠকটি সৌদি আরবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।