পণ্য উৎপাদন আমদানিতে ব্যাংকিং সুবিধার নির্দেশ

প্রকাশ: ২৬ এপ্রিল ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সাধারণ ছুটির এ সময়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য, চিকিৎসা সামগ্রি ও ইলেকট্রনিক সামগ্রী উৎপাদন ও আমদানিতে ব্যাংকিং সুবিধা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। রোববার এ সংক্রান্ত আদেশ ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়।

সাধারণ ছুটির মধ্যে অনেক অফিস বন্ধ থাকলেও সীমিত আকারে ব্যাংকিং লেনদেন চলছে। ধীরে-ধীরে ব্যাংক লেনদেনের সীমা বাড়াচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। রোববার থেকে শিল্পঘন এলাকা এবং ঢাকার মতিঝিল, দিলকুশা ও চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জ ও আগ্রাবাদে অবস্থিত সব শাখা খোলা রাখতে হচ্ছে। আর অনলাইন ব্যাংকিং নেই এরকম ব্যাংকের সব শাখা খোলা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অনলাইন ব্যাংকিং থাকলেও প্রতিটি জেলায় অন্তত একটি শাখা খোলা রাখতে বলা হয়েছে। এ সময়ে আমদানি বা উৎপাদনে থাকা কারখানায় ব্যাংকিং সুবিধা পেতে যেন কোনো সমস্যা না হয় সে জন্য নতুন করে নির্দেশনা দেওয়া হলো।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, করোনা প্রাদুর্ভাবজনিত প্রেক্ষাপটে নিত্যপ্রয়োজনীয় চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজ, মশুর ডাল, লবণ, চিনি, আদা, রসুনসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য, পানি, শিশু খাদ্য ও অন্যান্য খাদ্য সামগ্রী, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সকল প্রকার চিকিৎসা সামগ্রী ও ইলেকট্রনিক সামগ্রী স্বাস্থ্য বিধি মেনে উৎপাদন, আমদানি, পণ্য খালাস, পণ্য পরিবহন, কুরিয়ার ব্যবস্থা এবং ওয়্যারহাউস কার্যক্রম অব্যাহত রাখার বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এসব আমদানি পণ্য দ্রুত খালাসের লক্ষ্যে অনুমোদিত ডিলার ব্যাংক ডকুমেন্ট ছাড় করার বিষয়ে বিধিমোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

এতে আরও বলা হয়েছে, আমদানি নীতি আদেশ পরিপালন করে আমদানিকারককে প্রয়োজনীয় ব্যাংকিং সেবা দেওয়ার জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের চিঠিতে উল্লেখিত নির্দেশনার আলোকে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম নিতে বলা হয়েছে। 

এর আগে গত ১২ এপ্রিল জারি করা অপর এক নির্দেশনার মাধ্যমে সরাসরি আমদানিকারকের মাধ্যমে পাওয়া ডকুমেন্টের বিপরীতে পণ্য ছাড় ও আমদানি দায় পরিশোধের বিষয়ে দেওয়া নির্দেশনার বিষয়ে স্মরণ করিয়ে দেওয়া হয়েছে এ নির্দেশনায়।