সঞ্চয়পত্রের সব ধরনের লেনদেন চালু

প্রকাশ: ৩০ এপ্রিল ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

সাধারণ ছুটির মধ্যে সঞ্চয়পত্র বিক্রি ও পুনর্ভরণসহ সব ধরনের লেনদেন করা যাবে। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করে ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, সাধারণ ছুটি চলাকালীন বিভিন্ন ব্যাংকিং কার্যক্রমের পাশাপাশি ব্যাংকের গ্রাহকের জাতীয় সঞ্চয় সার্টিফিকেট মেয়াদপূর্তিতে নগদায়ন এবং কুপনের অর্থ পরিশোধ চালু আছে। এখন থেকে সঞ্চয়পত্রের বিক্রি, নগদায়ন ও পুনর্ভরণসহ যাবতীয় লেনদেন কার্যক্রম চালু থাকবে। বাংলাদেশ ব্যাংক নির্দেশিত ব্যাংকিং সময়সীমার মধ্যে এসব লেনদেন করতে হবে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকের শাখা, বাণিজ্যিক ব্যাংক, সঞ্চয় অধিদপ্তরের ৭১টি অফিস এবং ডাকঘরের মাধ্যমে সঞ্চয়পত্র বিক্রি হয়। আগে সঞ্চয় অধিদপ্তর থেকে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে সঞ্চয় কুপন ইস্যু করে ব্যাংকগুলোতে পাঠানো হত। সেই কুপনের আলোকে সুদ ও আসল পরিশোধসহ সব কার্যক্রম সঞ্চয় অফিস করত। তবে গত বছরের এপ্রিল থেকে অনলাইন ম্যানেজমেন্ট পদ্ধতি চালুর পর থেকে সঞ্চয়পত্র একটি নির্দিষ্ট সফটওয়্যারের মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে। 

এখন সঞ্চয় অধিদপ্তরের অফিস বন্ধ থাকলে সঞ্চয়পত্র বিক্রি ও নতুন নিয়মে কেনা সঞ্চয়পত্রের মুনাফা ও আসল পরিশোধে জটিলতা তৈরি হয়। এজন্য সাধারণ ছুটির মধ্যে প্রতি সপ্তাহের বুধ ও বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরের আওতাধীন দেশের সব অফিস খোলা থাকবে।