অফশোর ব্যাংকিংয়ের শর্ত শিথিল

প্রকাশ: ১৮ জুন ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

ব্যাংকগুলোর দাবির মুখে অফশোর ব্যাংকিং নীতিমালায় ব্যাপক শিথিলতা আনলো বাংলাদেশ ব্যাংক। যদিও বিদ্যমান নীতিমালার আলোকে এসএলআর রাখতে হবে। 

শর্ত শিথিল করে মাত্র ২ শতাংশ সিআরআর সংরক্ষণ করতে বলা হয়েছে। সাধারণভাবে যেখানে রাখতে হয় সাড়ে ৪ শতাংশ। আর অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে একটি ব্যাংকের মূলধনের ২০ শতাংশের পরিবর্তে এখন থেকে ৩০ শতাংশ পর্যন্ত তহবিল সংগ্রহ করা যাবে।

আরও বেশ কিছু সংশোধনী এনে বৃহস্পতিবার একটি সার্কুলার জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। দেশের বাইরে থেকে তহবিল সংগ্রহ করে রফতানিমুখী প্রতিষ্ঠানের মাঝে বিতরণের জন্য ১৯৮৫ সাল থেকে বাংলাদেশে অফশোর ব্যাংকিং কার্যক্রমের অনুমোদন দেওয়া হয়। তবে এতোদিন নীতিমালা ছাড়াই চলছিল কার্যক্রম। 

গত বছরের ২৫ ফেব্রুয়ারি প্রথমবারের মতো অফশোর ব্যাংকিং পরিচালনার নীতিমালা জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এখন অফশোর ব্যাংকিং ইউনিট থেকে বিতরণ করা ঋণের অন্তত ৭৫ শতাংশ বাংলাদেশে অবস্থিত কোম্পানিতে বিনিয়োগ করার বাধ্যবাধকতা দেওয়া হয়।

সংশোধনীতে বলা হয়েছে, সিআরআর সংক্রান্ত নীতিমালা আগামী ১ জুলাই থেকে কার্যকর হবে। অন্যসব নির্দেশনা সার্কুলার জারির দিন থেকে কার্যকর হবে। বাংলাদেশি শিল্পদ্যোক্তা মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদী ঋণ দেওয়ার আগে ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের অনুমোদন নেওয়ার শর্ত তুলে দেওয়া হয়েছে। এখন থেকে ঋণ দেওয়ার পর বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগকে অবহিত করতে হবে।

এতে আরও বলা হয়েছে, ব্যাংকের অফশোর কার্যক্রমের তহবিল আহরণের সুযোগ বৃদ্ধি, বৈদেশিক তহবিলের ব্যবহার নিশ্চিত করা, তহবিল ব্যবস্থাপনা যথাযথ রাখার মাধ্যমে অফশোর ব্যবসার সক্ষমতা বৃদ্ধি ও অফশোর ব্যাংকিং কার্যক্রমের আরও সুষ্ঠু বিকাশের জন্য এসব সংশোধনী আনা হয়েছে।