সাইবার হামলার শঙ্কা

রাতে অনেক ব্যাংকের এটিএম সেবা বন্ধ

প্রকাশ: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

সাইবার হামলার আশঙ্কায় মধ্যরাত থেকে ভোর পর্যন্ত এটিএম সেবা বন্ধ রাখছে অনেক ব্যাংক। কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে একটি সতর্ক বার্তা পাওয়ার পর এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সতর্কতা তুলে নেওয়ার আগ পর্যন্ত এ অবস্থা চলবে।

ডাচ-বাংলা রাত ১১টা থেকে ভোর ৭টা পর্যন্ত এটিএম বুথ বন্ধ রাখছে। ব্র্যাক ব্যাংকের এটিএম সেবা বন্ধ থাকছে রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত। অন্যান্য অনেক ব্যাংক মধ্যরাত থেকে ভোর পর্যন্ত এটিএম সেবা বন্ধ রাখছে। এছাড়া আন্তর্জাতিক ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডের লেনদেন তদারকি জোরদার করাসহ সব পর্যায়ে সতর্কতা বাড়ানো হয়েছে।

জানা গেছে, আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থা থেকে উত্তর কোরিয়ার একটি হ্যাকার গ্রুপ ব্যাংকগুলোতে আক্রমণের চেষ্টা করছে বলে সরকারের কম্পিউটার ইনসিডেন্ড রেসপন্স টিম (সার্ট) ও পুলিশের সাইবার অপরাধ তদন্ত বিভাগের কাছে তথ্য আসে। এ কারণে বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সব ব্যাংককের সাইবার নিরাপত্তা জোরদার করতে বলা হয়। এরপরই কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে গত বৃহস্পতিবার সব ব্যাংকে চিঠি দিয়ে সাইবার হামলার বিষয়ে সতর্ক করা হয়। উত্তর কোরিয়ার হ্যাকার গ্রুপ 'বিগল বয়েজ' এ হামলা চালাতে পারে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

চিঠি পাওয়ার পর সব ব্যাংক অভ্যন্তরীণভাবে বাড়তি সতর্কতা জারি করেছে। ব্যাংকগুলো রাতের একটি নির্দিষ্ট সময়ে এটিএম সেবা বন্ধ রাখার পাশাপাশি কর্মকর্তাদের সার্বক্ষণিক সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে। বিশেষ করে তথ্য প্রযুক্তি বিভাগে কর্মরতদের সার্বক্ষণিক নজরদারি বাড়াতে বলা হয়েছে। অনেক ব্যাংক আন্ত:ব্যাংক এটিএম লেনদেন সীমিত করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, দেশে কার্যরত ব্যাংকগুলোর মধ্যে ৫২টি ব্যাংকের এটিএম সেবা রয়েছে। এসব ব্যাংকের মোট এটিএম বুথ রয়েছে ১০ হাজার ৯৬১টি। আর ৫১টি ব্যাংকের পয়েন্ট অব সেলস বা পস রয়েছে ৬০ হাজার ৪৭৪টি। গত জুন পর্যন্ত ব্যাংকগুলোর ইস্যুকৃত মোট কার্ড রয়েছে ২ কোটি ১৯ লাখ। এর মধ্যে ডেবিট কার্ডের সংখ্যা এক কোটি ৯৭ লাখ। আর ক্রেডিট কার্ড প্রায় ১৬ লাখ। বাকি ৬ লাখের মতো রয়েছে প্রিপেইড কার্ড। এর মধ্যে কার্ডভিত্তিক সেবায় সব চেয়ে এগিয়ে থাকা ডাচ-বাংলা ব্যাংকের এটিএম বুথ রয়েছে চার হাজার ৮০০টি এবং এক হাজার ১৬৪টি রয়েছে ফাস্ট ট্রাক।

একটি ফাস্ট ট্রাকে কয়েকটি এটিএম বুথ এবং কর্মকর্তা ডিউটি করেন। সব ব্যাংকের এটিএম বুথে যেখানে শুধুমাত্র সার্বক্ষণিক সিকিউরিটি গার্ড ডিউটি করেন। আগে থেকেই ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ফাস্ট ট্রাক রাত ১১টা থেকে ভোর ৭টা পর্যন্ত বন্ধ থাকতো। এখন সব এটিএম বুথও বন্ধ রাখা হচ্ছে।

ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কাশেম মো. শিরিন সমকালকে বলেন, সাইবার হামলা রোধে এমনিতেই তারা অনেক সতর্ক আছেন। কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে চিঠি পাওয়ার পর সতর্কতা আরও বাড়ানো হয়েছে। রাতের একটি অংশ এটিএম সেবা বন্ধ রাখা হচ্ছে। অবশ্য এটিএম সেবা ছাড়া ইন্টারনেট ব্যাংকিং ও পস লেনদেন চালু থাকে।

শুধু কী রাতে সাইবার হামলার আশঙ্কা রয়েছে এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, অন্য সময়ে কর্মকর্তারা স্বশরীরে উপস্থিত থেকে তদারক করেন। কেউ হামলার চেষ্টা করছে কিনা সেটা দেখা হয়। তবে রাতের ওই সময়ে যেহেতু কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকেন না। সে কারণে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।