রাষ্ট্র মালিকানাধীন বিশেষায়িত ব্যাংকগুলোর কর্মীরা এখন থেকে হাওড়, দ্বীপ ও চর ভাতা পাবেন। পদমর্যাদা অনুযায়ী মাসে ন্যূনতম এক হাজার ৬৫০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা ভাতা পাবেন বিশেষায়িত ব্যাংকের কর্মীরা।

মঙ্গলবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ এক প্রজ্ঞাপনে এ সিদ্ধান্ত জানিয়েছে।

২০১৮ সালে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সরকারি কর্মকর্তা, কর্মচারীদের যারা হাওড়, দ্বীপ ও চর এলাকায় কাজ করবেন তাদের বিশেষ ভাতা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। এজন্য দেশের ১৬টি উপজেলাকে হাওড়, দ্বীপ ও চর এলাকা হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। এরপর ২০১৯ সালের মে মাসে অর্থ বিভাগ থেকে এক প্রজ্ঞাপনে সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ভাতা দেওয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হয়। 

এরপর এ সুবিধা রাষ্ট্র মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ব্যাংকের কার্যকর হলেও বিশেষায়িত ব্যাংকে হয়নি। 

এখন থেকে বিশেষায়িত কৃষি ব্যাংক, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক, কর্মসংস্থান ব্যাংক, আনসার ভিডিপি ব্যাংক ও গ্রামীণ ব্যাংকের কর্মীরাও এ সুবিধা পাবেন।

অর্থ বিভাগের ওই ঘোষণায় জানানো হয়, ২০ তম গ্রেডের কর্মীরা এক হাজার ৬৫০ টাকা ভাতা পাবেন। আর সপ্তম ও তদূর্ধ্ব গ্রেডের কর্মকর্তারা পাবেন ৫ হাজার টাকা করে। এছাড়া ১৯তম গ্রেডে ১৭০০, ১৮তম গ্রেডে ১৭৬০, ১৭তম গ্রেডে ১৮০০, ১৬তম গ্রেডে ১৮৬০, ১৫তম গ্রেডে ১৯৪০, ১৪তম গ্রেডে ২০৪০, ১৩তম গ্রেডে ২২০০, ১২ তম গ্রেডে ২২৬০, ১১ তম গ্রেডে ২৫০০, ১০তম গ্রেডে ৩২০০, ৯ম গ্রেডে ৪৪০০ এবং অষ্টম গ্রেডে ৪৬০০ টাকা করে ভাতা পাবেন।