মঠবাড়িয়ায় ৩ ক্লিনিককে অর্থদণ্ড, দুইজনের জেল

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০২০   

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

পিরোজপুরের মঠবাডিয়ায় নানা অনিয়মের ঘটনায় তিনটি ক্লিনিকে অভিযান চালিয়ে অর্থদণ্ড এবং ভুয়া চিকিৎসক ও মালিকসহ দুইজনকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পীযুষ কুমার চৌধুরীর নেতৃত্বে এই আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় র‌্যাব-৮ এর একটি দল অভিযানে অংশ নেয়।

র‌্যাব জানিয়েছে, উপজেলার ধানীসাফা বন্দরের আব্দুর রাজ্জাক সার্জিক্যাল ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ভুয়া ডাক্তার আমির হোসেন ভূঁইয়াকে (৪৫) ৬ মাসের কারাদণ্ড ও  পৌর শহরের দক্ষিণ বন্দর  মাছ বাজার সংলগ্ন মহিমা ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক মাছ ব্যবসায়ী গোলাম মোস্তফাকে (৪০) ভুয়া ডাক্তার দিয়ে অপারেশন করার অপরাধে ৩ মাসের কারাদণ্ড, ৩০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ভুয়া ডাক্তার এ এইচ ভূইয়া সুজনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা ও ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

এছাড়া সৌদি প্রবাসী  ভুয়া ডাক্তার আমির হোসেন ভূঁইয়াকে দিয়ে বিভিন্ন সময়ে অপারেশন করানোর অপরাধে হাসপাতালের মালিক মো. মনির হোসেনকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এদিকে মহিমা ক্লিনিকের মালিক গোলাম মোস্তফার কারাদণ্ডের খবর ছড়িয়ে পড়লে বসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মোস্তফার ডাক্তার সেজে গর্ভবতী মায়েদের অপারেশন থিয়েটারে পোশাক পর সিজার করা ছবিসহ ক্ষোভ প্রকাশ করে স্ট্যাটাস দেন অনেকে।

বিষয় : পিরোজপুর