যেভাবে প্রথম বিবাহবার্ষিকী কাটালেন রণবীর-দীপিকা

প্রকাশ: ১৪ নভেম্বর ২০১৯     আপডেট: ১৪ নভেম্বর ২০১৯      

বিনোদন ডেস্ক

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে রণবীর-দীপিকা- ইনস্টাগ্রাম

২০১৮ সালের ১৪ নভেম্বর  উত্তর ইতালির লেক কোমোয় ‘ডেস্টিনেশন ওয়েডিং’ হয় দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর সিংয়ের। সিন্ধি ও কোংকানি প্রথা মেনে সাত পাকে বাঁধা পড়েন এ জুটি। দেখতে দেখতে তারা পার করে দিলেন বিয়ের একটি বছর। নানা আয়োজনে বৃহস্পতিবার তারা উদযাপন করছেন তাদের প্রথম বিবাহবার্ষিকী। 

এর আগে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো ফলাও করে প্রচার করে তাদের প্রথম বিবাহবার্ষিকীর নানা পরিকল্পনার কথা। এ উপলক্ষ্যে দীপিকা-রণবীর কোন স্টাইলের পোষাক পড়ে বিবাহবার্ষিকী উদযাপন করবেন  এ নিয়ে খবর প্রকাশিত হয়। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিবাহবার্ষিকীর দিনে বৃহস্পতিবার সকালে দীপিকা পাডুকোন ও রণবীর সিং পরিবারের সদস্যের নিয়ে রাজকীয় সাজে গিয়েছিলেন তিরুপতি বালাজীর মন্দিরে পুজো দিতে।

এদিন দীপিকা পাড়ুকোন পরেছিলেন ঐতিহ্যবাহী লাল শাড়ি। গলায় সোনার নেকলেস, কানে সোনার দুল, হাতে চূড় আর কপালে লাল সিঁদুর। স্ত্রীর সঙ্গে মিলিয়ে রণবীর সিংয়ের পরনে ছিল সোনালি রঙের কারুকাজ করা শেরওয়ানি আর লাল রঙের জরির পাড়ের ওড়না। পায়ে বাদামি রঙের মানানসই চটি।



তিরুপতি মন্দিরের সামনে থেকে তোলা একটি ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে দীপিকা পাড়ুকোন লিখেছেন, ‘প্রথম বিবাহবার্ষিকীতে আশীর্বাদ নিতে এসেছি। আমাদের জন্য আপনাদের ভালোবাসা, দোয়া আর শুভকামনার জন্য ধন্যবাদ, কৃতজ্ঞতা।’ 

মাত্র দুই ঘণ্টায় এই ছবিতে ‘লাইক’ পড়েছে প্রায় ২০ লাখ! আর মন্তব্য করেছেন ২০ হাজারেরও বেশি মানুষ। সেখানে আনুষ্ঠানিকতা সেরে এ তারকা জুটি যাবেন অমৃতসরের স্বর্ণমন্দিরে। ওখানে  প্রার্থনা শেষে ১৫ নভেম্বর ফিরবেন মুম্বাই।