মুক্তধারা ফাউন্ডেশন আয়োজিত নিউইয়র্ক বাংলা বইমেলা আগামী আগামী ১০ সেপ্টেম্বর শুরু হবে।

এবারের বইমেলার প্রধান বিষয় হবে-বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী' ও নিউইয়র্ক বাংলা বইমেলার ত্রিশ বছর পূর্তি। মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের কার্যকরী কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

গত ১৬ জুন ৩০তম নিউইয়র্ক বাংলা বইমেলার আহ্বায়ক ড. নূরুন নবীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সভায় বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং বইমেলার ৩০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানের বিষয় আলোচিত হয়। 

লেখক-প্রাবন্ধিক হাসান ফেরদৌসকে প্রধান করে ৬ সদস্যবিশিষ্ট অনুষ্ঠান কমিটি গঠন করা হয়েছে। 

কমিটিতে আরও রয়েছেন ড. নূরুন নবী, জিয়াউদ্দীন আহমেদ, ফেরদৌস সাজেদীন, আহমাদ মাযহার ও আদনান সৈয়দ। 

এছাড়া ডা. জিয়াউদ্দীন আহমেদ, ড. নূরুন নবী, ফেরদৌস সাজেদীন, গোলাম ফারুক ভুঁইয়া, ড. জিনাত নবী, ডাঃ ফাতেমা আহমেদ ও তানভীর রাব্বানীকে সদস্য করে গঠিত হয়েছে ৭ সদস্যবিশিষ্ট অর্থ কমিটি। 

একই সভায় গঠিত হয়েছে স্মারক-সংকলন প্রকাশনা কমিটিও। স্মারক-সংকলন সম্পাদনার দায়িত্ব পালন করবেন কামরুন জিনিয়া। 

কোভিড-১৯ এর কারণে গত বছর মুক্তধারা ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের ২৫টি প্রকাশনা সংস্থার অংশগ্রহণে প্রথম ভার্চুয়াল বাংলা বইমেলার আয়োজন করে। বইমেলা উৎসর্গ করা হয় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।

আয়োজকরা আশা করছেন, এ বছর প্রকাশকেরা সশরীরে উপস্থিত হয়ে নিউ ইয়র্ক বাংলা বইমেলায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। সশরীরে বইমেলায় উপস্থিত হয়ে বই ক্রয় করতে পারবেন পাঠকেরাও। 

কার্যকরী কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ বছরও পৃথিবীর সব দেশ থেকে অনলাইনে বিশেষ হ্রাসকৃত মূল্যে বই কেনার সুযোগ থাকবে।