আগামী ২৮ থেকে ৩১ জুলাই নিউইয়র্কে চার দিনব্যাপী বাংলা বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে। গত ১০ এপ্রিল মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের কার্যকরী কমিটির ভার্চুয়াল সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ও পশ্চিম বাংলার বাইরে সবচেয়ে বড় ও দীর্ঘস্থায়ী বইমেলা হিসেবে স্বীকৃত এই বইমেলার ৩১তম আসরের আহ্বায়ক গোলাম ফারুক ভুঁইয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা একুশে পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখক ড. নূরন নবী, ভয়েস অব আমেরিকার বাংলা বিভাগের সাবেক প্রধান রোকেয়া হায়দার, মুক্তিযোদ্ধা ডা. জিয়াউদ্দীন আহমেদ, কথা সাহিত্যিক ও মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন ফেরদৌস সাজেদীন, ফা্উন্ডেশনের ভাইস চেয়ারপার্সন প্রাবন্ধিক-লেখক হাসান ফেরদৌস, কার্যকরী কমিটির সদস্য-সংস্কৃতি কর্মী সউদ চৌধুরী, প্রাবন্ধিক-গবেষক আহমাদ মাযহার, লেখক-সাংবাদিক ফাহিম রেজা নূর, লেখক আদনান সৈয়দ, ফাউন্ডেশনের কোষাধ্যক্ষ ও ব্লগার তানভীর রাব্বানী, সংস্কৃতি কর্মী সাবিনা হাই উর্বি, ফাউন্ডেশনের প্রযুক্তি বিষয়ক কর্মকর্তা মুরাদ আকাশ ও ফাউন্ডেশনের সিইও বিশ্বজিত সাহা উপস্থিত ছিলেন।

কার্যকরী কমিটির সভায় আসন্ন বইমেলাকে সফল করে তোলার জন্য সর্বসম্মতিক্রমে আট সদস্য বিশিষ্ট কোর কমিটি গঠিত হয়। এই কমিটির সদস্যরা হলেন, গোলাম ফারুক ভুঁইয়া, ফেরদৌস সাজেদীন, আহমাদ মাযহার, আদনান সৈয়দ, সেমন্তী ওয়াহেদ, তানভীর রাব্বানী ও বিশ্বজিত সাহা। হাসান ফেরদৌস এ কমিটির উপদেষ্টা।

এ ছাড়া গোলাম ফারুক ভুঁইয়াকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট ফান্ড রেইজিং কমিটি গঠিত হয়। এই কমিটিতে রয়েছেন ড. নূরন নবী, ডা. জিয়াউদ্দীন আহমেদ, ফেরদৌস সাজেদীন ও তানভীর রাব্বানী।

নিউ ইয়র্ক বাংলা বইমেলার আহ্বায়ক গোলাম ফারুক ভুঁইয়া জানান, ৩১তম বইমেলার অনুষ্ঠানমালা আরও বেশি বই কেন্দ্রিক ও বৈচিত্র্যময় হবে বলে কমিটি সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।