করোনা পরিস্থিতি সামলে ৮.২ শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য

প্রকাশ: ১১ জুন ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

আগামী ২০২০-২১ অর্থবছরে মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) ৮ দশমিক ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জনের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনকালে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ তথ্য জানান। এর আগে সংসদের অধিবেশন শুরুর পর স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর অনুমোদনক্রমে প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন শুরু করেন অর্থমন্ত্রী।

চলতি অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটেও জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৮ দশমিক ২ শতাংশ ধরা হয়েছিল। তবে তা সংশোধন করে ৫ দশমিক ২ শতাংশে পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, 'বিগত এক দশক ধরে আমাদের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ক্রমাগত হারে বেড়েছে। গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে, যা এশিয়ার সব দেশের মধ্যে সর্বোচ্চ। আমাদের প্রবৃদ্ধির মূল চালিকাশক্তি ছিল শক্তিশালী অভ্যন্তরীণ চাহিদা। কিন্তু কোভিড-১৯ এর প্রভাবে বিশ্বব্যাপী দীর্ঘ সময় ধরে চলা লকডাউনের কারণে রপ্তানি হ্রাস পাওয়ায় এবং প্রবাস আয়ে কাঙ্ক্ষিত প্রবৃদ্ধি অর্জিত না হওয়ায় চলতি অর্থবছরের জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার সংশোধন করে ৫ দশমিক ২ শতাংশে নির্ধারণ করা হয়েছে।'

আগামী অর্থবছরের জন্য ৮ দশমিক ২ শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, 'কোভিড পরবর্তী উত্তরণের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার সাথে সামঞ্জস্য রেখে আগামী ২০২০-২১ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধির হার ৮ দশমিক ২ শতাংশে নির্ধারণ করা হয়েছে। এ সময়ে মূল্যস্ফীতি ৫ দশমিক ৪ শতাংশ হবে মর্মে আশা করছি।'

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী আগামী অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করেছেন। এতে ঘাটতি ধরা হয়েছে ৬ শতাংশ।