এইচএসসি অথবা এ-লেভেলের পর বাইরে পড়াশোনা করতে যাওয়ার সঠিক সময়। এ ছাড়া স্নাতক লেভেলে সব জায়গা থেকেই স্কলারশিপ পাওয়ার সুযোগ থাকে। উন্নত শিক্ষাব্যবস্থা ও জীবনযাত্রা, গবেষণা ও চাকরির ভালো ক্ষেত্র থাকার কারণে অনেকেই বিদেশের দিকে ঝুঁকছেন। এইচএসসির পর বিদেশে স্নাতক করতে হলে আগে থেকে পরিকল্পনা করা জরুরি। অন্তত ৭-৮ মাস আগে থেকেই সেই পরিকল্পনা শুরু করতে হবে। কারণ, নিজের আর্থিক সামর্থ্য বুঝে শহর ও বিশ্ববিদ্যালয় বাছাই করার মতো বড় সিদ্ধান্ত একটু বুঝেশুনেই নেওয়া উচিত। আর্থিক সামর্থ্য ও সীমাবদ্ধতার কথা ভেবে দেশের শিক্ষার্থীরা ফুল ফ্রি স্কলারশিপ খোঁজেন। কানাডা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশের মতো যুক্তরাষ্ট্রেও স্নাতক পর্যায়ে অনেক স্কলারশিপের সুযোগ আছে।

সিমন্স বিশ্ববিদ্যালয়
স্নাতকে ফুল ফ্রি স্কলারশিপ দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের সিমন্স বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশসহ যে কোনো দেশের শিক্ষার্থীরা এ স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের শেষ সময় আগামী ১ ডিসেম্বর। 'কোটজেন স্কলারশিপ'-এর আওতায় শিক্ষার্থীরা বিনা খরচে তাঁদের স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করতে পারবেন। সম্পূর্ণ টিউশন ফি মওকুফ, আবাসন ব্যবস্থা ও ৩ হাজার ডলারের উপবৃত্তি দেওয়া হবে। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় ২ লাখ ৬৪ হাজার টাকা। এ স্কলারশিপের মেয়াদ ৪ বছর। এ স্কলারশিপের মূল উদ্দেশ্য- ছাত্রদের সৃজনশীল দক্ষতা বিকাশ করা।

সুযোগ-সুবিধা
- শিক্ষার্থীদের সব খরচ বহন করে।
- সম্পূর্ণ টিউশন ফি দেয়।
- বিনামূল্যে একটি রুম সুবিধা দেয়।
- ৩ হাজার ডলারের উপবৃত্তি দেওয়া হয়। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় ২ লাখ ৬৪ হাজার টাকা।

আবেদনের যোগ্যতা
- উচ্চ মাধ্যমিকে ভালো ফলধারী হতে হবে।
- মেধার ভিত্তিতে এ স্কলারশিপ দেওয়া হবে।
-আইইএলটিএস ও টোফেল স্কোর জমা দিতে হবে। আবেদনের লিঙ্ক- https://www.simmons.ed /undergraduate/admis sion-and-financial-aid/tuition-financial- aid/types-financial-aid/scholarships/kotzen আমেরিকান ইউনিভার্সিটি
স্নাতকে ফুল ফ্রি স্কলারশিপ দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের আমেরিকান ইউনিভার্সিটি। বাংলাদেশসহ যে কোনো দেশের শিক্ষার্থীরা এ স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের শেষ সময় আগামী ১৫ ডিসেম্বর।
'আমেরিকান ইউনিভার্সিটি এমার্জিং গ্লোবাল লিডার স্কলারশিপ'-এর আওতায় শিক্ষার্থীরা বিনা খরচে তাঁদের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করতে পারবেন। সম্পূর্ণ টিউশন ফি মওকুফ, আবাসন ব্যবস্থাসহ নানা ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হবে।

সুযোগ-সুবিধা
-সম্পূর্ণ টিউশন ফি মওকুফ করা হবে।
-আবাসন ব্যবস্থা।

আবেদনের যোগ্যতা
ইংরেজি দক্ষতার সনদ প্রদর্শন করতে হবে। টোফেল আইবিটিতে নূ্যনতম ৯৫ পেতে হবে অথবা আইইএলটিএসে নূ্যনতম ৭ পেতে হবে।
আবেদন করতে- https://www.american.edu/admissions/international/au-egls-apply.cfm

ক্লার্ক গ্লোবাল স্কলারশিপ প্রোগ্রাম
আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য আন্ডারগ্র্যাজুয়েট পর্যায়ে ফুল ফ্রি স্কলারশিপের সুযোগ দিচ্ছে ক্লার্ক গ্লোবাল স্কলারশিপ প্রোগ্রাম। একজন শিক্ষার্থীকে এই প্রোগ্রামের আওতায় ৪ বছরের জন্য প্রতি বছর ১৫ হাজার থেকে ২৫ হাজার ডলার স্কলারশিপ সুবিধা দেওয়া হবে। যা নির্ভর করবে একাডেমিক সাফল্যের ওপর।।
আবেদন- https://scholarshiproar.com/ clark-global-scholarship-program/?amp

ইয়েল ইউনিভার্সিটি
ইয়েল ইউনিভার্সিটি স্কলারশিপ আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য একটি সম্পূর্ণ অর্থায়িত বৃত্তি। এই বৃত্তিটি স্নাতক, স্নাতকোত্তর এবং পিএইচডির জন্য দেওয়া হয়। ইয়েল স্কলারশিপ প্রতি বছর কয়েকশ ডলার থেকে শুরু করে ৭০ হাজার ডলারের বেশি স্কলারশিপ দেয়। https://scholarshiproar.com/ yale-university-scholarships/?amp

প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়
প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটির অনেক বিদেশি স্নাতক ছাত্রকে স্কলারশিপ দেওয়া হয়, যা টিউশন, থাকার ব্যবস্থাসহ অনেক সুবিধা দিয়ে থাকে। এই স্নাতক বৃত্তিগুলো আর্থিক প্রয়োজনের ভিত্তিতে প্রদান করা হয়।
https://admission.princeton.edu/academics/ faculty-profiles/eric-wieschaus

ডিউক বিশ্ববিদ্যালয়
ডিউক ইনস্টিটিউশন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর ক্যারোলিনার একটি মর্যাদাপূর্ণ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়।
এই ইউনিভার্সিটি স্নাতক ছাত্রদের সম্পূর্ণ আর্থিক সহায়তা প্রদান করে, সেসঙ্গে মাস্টার্স এবং পিএইচডির জন্য ফেলোশিপ প্রদান করে।
https://ousf.duke.edu/merit-scholarships/

ইউনিভার্সিটি অব অ্যারিজোনা
যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা রাজ্যের প্রথম পাবলিক ইউনিভার্সিটি হচ্ছে ইউনিভার্সিটি অব অ্যারিজোনা। এটি যুক্তরাষ্ট্রের একটি প্রথম সারির বিশ্ববিদ্যালয়। আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য স্নাতক পর্যায়ের বৃত্তির সুযোগ দিচ্ছে ইউনিভার্সিটি অব অ্যারিজোনা।
www.arizona.edu/admissions