রাজধানী

ঢাকায় পাতাল রেলের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে অনুমোদন

প্রকাশ: ১১ জুলাই ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

প্রতীকী ছবি

ঢাকায় পাতাল রেল (সাবওয়ে) নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের অনুমোদন দিয়েছে সরকার। স্প্যানিশ প্রতিষ্ঠান তিপসা এ প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাই করবে। ২২০ কোটি ব্যয়ে ঢাকায় চারটি পাতাল রেল রুট নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাই করবে প্রতিষ্ঠানটি।

বুধবার এ প্রস্তাবে অনুমোদন দেয় সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। এতে সভাপতিত্ব করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

ঢাকার যানজট নিরসনে ২০ বছর মেয়াদি সংশোধিত কৌশলগত পরিবহন পরিকল্পনা (আরএসটিপি) অনুযায়ী, পাঁচটি মেট্রোরেল রুট নির্মাণ করা হবে। এর একটির (এমআরটি-৬) নির্মাণ কাজ চলছে। মেট্রোরেল বিদ্যমান সড়কের ওপর দিয়ে নির্মাণ করা হবে। কিছু অংশ থাকবে মাটির নিচে। কিন্তু সাবওয়ের পুরোটাই থাকবে মাটির নিচে।

ঢাকায় চারটি সাবওয়ে রুট নির্ধারণ করে সমীক্ষা কাজ চলবে। রুট-১ এর আওতায় গাজীপুরের টঙ্গী থেকে বিমানবন্দর-কাকলী-মহাখালী-মগবাজার-মতিঝিল শাপলা চত্বর-সায়েদাবাদ হয়ে নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড পর্যন্ত সমীক্ষা চালানো হবে। এ রুটের দৈর্ঘ্য ৩২ কিলোমিটার। রুট-২ এর আওতায় সাভারে আমিনবাজার থেকে গাবতলী-আসাদগেট-ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি-ইত্তেফাক মোড়-সায়েদাবাদ পর্যন্ত ১৬ কিলোমিটার পথে সমীক্ষা হবে। 

রুট-৩ এর অধীনে গাবতলী থেকে মিরপুর ১-মিরপুর ১০-কাকলী-গুলশান ২-নতুন বাজার-রামপুরা টিভি স্টেশন-খিলক্ষেত-শাপলা চত্বর-জগন্নাথ হল হয়ে কেরানীগঞ্জ পর্যন্ত সমীক্ষা চলবে। রুট-৪ এর আওতায় রামপুরা টিভি স্টেশন থেকে নিকেতন-তেজগাঁও-সোনারগাঁও হোটেল-পান্থপথ-ধানমণ্ডি ২৭-জিগাতলা-আজিমপুর-লালবাগ হয়ে সদরঘাট পর্যন্ত পাতাল রেলে সম্ভাব্যতা যাচাই করা হবে। রুট-৩ ও ৪ এর দৈর্ঘ্য এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। 

পাতাল রেল নির্মাণের উদ্যোগ নিতে ২০১৬ সালে সেতু বিভাগকে চিঠি দেয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। একই বছর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দেন উন্নত দেশগুলোর মতো ঢাকায় পাতাল রেল নির্মাণ করা হবে। ২০২১ সালের মধ্যে ঢাকায় দুটি পাতাল রেল রুট চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে সেতু বিভাগের।

প্রকল্প অনুমোদন দিয়ে কমিটির নথিতে বলা হয়েছে, সাবওয়ে নির্মিত হলে জনসংখ্যার একটি বিরাট অংশ মাটির নিচ দিয়ে চলাচল করতে পারবে। এতে মাটির ওপরে রাস্তায় মানুষের চলাচল কমবে। বাড়বে ফাঁকা জায়গা। যানজট দূর হবে।

সেতু বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মাটির ২০ থেকে ৪০ মিটার গভীরে পাতাল রেলপথ নির্মাণ করা হবে। অত্যাধুনিক টানেল বোরিং মেশিন (টিবিএম) ব্যবহার করা হবে এ কাজে। তাই প্রকল্প বাস্তবায়নের সময় জনদুর্ভোগ হবে না। মাটির ওপরে খোঁড়াখুঁড়ি করতে হবে না।

সেতু বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, উড়াল সড়ক, ফ্লাইওভারের সম্ভাব্য আয়ুস্কাল ৫০-৭৫ বছর। পাতাল রেলের আয়ুস্কাল ১০০ থেকে ১২৫ বছর। লন্ডনের শতবর্ষী পাতাল রেল এখনও সচল রয়েছে। যানজট নিরসনে লন্ডন ছাড়াও নিউইয়র্ক, সানফ্রান্সিসকো, বাগোতার মতো শহরে উড়াল সড়ক, ফ্লাইওভার, ভায়াডাক্ট অপসারণ করে সাবওয়ে নির্মাণ করা হয়েছে।

এ ছাড়া দুই কোটি পিস ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট (ই-পাসপোর্ট) বানাবে সরকার। এর মধ্যে ২০ লাখ আমদানি করা হবে। বাকি এক কোটি ৮০ লাখ পিস দেশে তৈরি করা হবে। এ জন্য তিন হাজার ৩৩৯ কোটি টাকা ব্যয় হবে।

জানা যায়, আগামী ডিসেম্বর থেকে বাংলাদেশও চালু হতে পারে ই-পাসপোর্ট। বর্তমানে বিশ্বের ১১৯টি দেশে চালু আছে ই-পাসপোর্ট।

ভারত থেকে আরও ২৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ ক্রয় করা হবে: বুধবারের বৈঠকে দেশের চাহিদা মেটাতে ১৫ বছর মেয়াদে ভারত থেকে আরও ২৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ ক্রয়ের দর প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রতি কিলোওয়াটের দাম হবে ৪ টাকা ৬৯ পয়সা। আর দীর্ঘ মেয়াদে ২০২০ সালের ১ জুলাই থেকে ২০৩৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতি কিলোওয়াট বিদ্যুতের দাম পড়বে ৬ টাকা ১৭ পয়সা। ভারতের গায়ত্রী পাওয়ার লিমিটেডের কাছ থেকে কয়লাভিত্তিক এই বিদ্যুৎ আনার পর দেশের জাতীয় সঞ্চালন লাইনে যোগ হবে।

আসুন ওদের ভুলে যাই!

আসুন ওদের ভুলে যাই!

'কিছু কিছু মানুষ সত্যি খুব অসহায়। তাদের ভালোলাগা, মন্দলাগা, ব্যথা-বেদনাগুলো ...

ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলে দূরত্ব বাড়ছে

ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলে দূরত্ব বাড়ছে

একদিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট, অন্যদিকে ২০ দলীয় ঐক্যজোট। দুই জোটের নেতৃত্বেই ...

ঝিনুক নেই মোতিও নেই

ঝিনুক নেই মোতিও নেই

চলনবিলে আর ঝিনুক মেলে না। ঝিনুকের মোতিও মেলে না। রুদ্র ...

দিনাজপুরে প্রাণিখেকো উদ্ভিদ

দিনাজপুরে প্রাণিখেকো উদ্ভিদ

প্রাণীদের খেয়ে ফেলে- এমন উদ্ভিদের কথা রূপকথার গল্পে আছে, বাস্তবেও ...

মধ্যপ্রাচ্যে পাটপণ্য রফতানিতে ধস

মধ্যপ্রাচ্যে পাটপণ্য রফতানিতে ধস

কয়েক বছর বিশ্ববাজারে রমরমা ব্যবসার পর বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপটে ও ...

চট্টগ্রামে পাইকারি বাজারে অস্থিরতা

চট্টগ্রামে পাইকারি বাজারে অস্থিরতা

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আমদানি করা চায়না রসুনের প্রতি কেজির ...

জমাট ম্যাচে খুলনাকে হারাল কুমিল্লা

জমাট ম্যাচে খুলনাকে হারাল কুমিল্লা

নিজেদের হতভাগা না ভাবার কারণ নেই খুলনা টাইটান্সের। জয় খরা ...

ভোট ডাকাতি করে কেউ পার পাবে না: ড. কামাল

ভোট ডাকাতি করে কেউ পার পাবে না: ড. কামাল

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটের 'মহাডাকাতি' হয়েছে অভিযোগ করে জাতীয় ...