রাজধানী

ব্যবসায়ী ইউনুস হত্যা: এএসআই নূর আলম গ্রেফতার

প্রকাশ: ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮     আপডেট: ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি

ব্যবসায়ী ইউনুস হাওলাদার হত্যার ‘মূল পরিকল্পনাকারী’ এএসআই নূর আলমকে গ্রেফতার করে পুলিশ

রাজধানী ঢাকার শ্যামপুরের ব্যবসায়ী ইউনুস হাওলাদার হত্যার 'মূল পরিকল্পনাকারী' পুলিশের এএসআই নূর আলমকে শনিবার রাতে রাজধানীর ওয়ারী এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ। 

ব্যবসায়ী ইউনুস খুন হওয়ার পর থেকে পলাতক ছিলেন তিনি। ইউনুস হত্যার সময় তিনি শ্যামপুর থানায় কর্মরত ছিলেন। অভিযোগ থাকায় তাকে শ্যামপুর থানা থেকে প্রত্যাহার করা হয়।

ইউনুস হত্যার আসামি সুমন মিয়া আদালতে ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে জানিয়েছেন, ইউনুসের তিন ছেলে ও দুই মেয়ে। ঢাকার শ্যামপুরে তার দুটি বাড়ি আছে। একটিতে তিনি পরিবার নিয়ে থাকতেন। অন্যটি ভাড়া দেওয়া হয়। গত ১৯ জানুয়ারি তার বাসায় অভিযান চালিয়ে পাঁচ ভাড়াটেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে শ্যামপুর থানায় মানব পাচার আইনে মামলা হয়। এ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে পতিতাবৃত্তির অভিযোগ আনা হয়। পরে তিনি উচ্চ আদালত থেকে জামিন নেন।

গত ২৫ জুন দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার হাসনাবাদ এলাকা থেকে ইউনুসের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সেদিনই তার ছেলে আতিকুজ্জামান বাদী হয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এ মামলায় ইউনুসের বাড়ির ভাড়াটে ওহিদ সুমন ও যাত্রাবাড়ী এলাকার ছাবের ওরফে শামীমকে আটক করে পুলিশ। পরে খুনের দায় স্বীকার করে ঢাকার আদালতে জবানবন্দি দেয় সুমন। সেখানেই তিনি বলেন, এ খুনের পরিকল্পনাকারী নূর আলম। পুরান ঢাকার নবাবপুরে কৃষি যন্ত্রাংশের ব্যবসা করতেন ইউনুস হাওলাদার।

ইউনুসের স্ত্রী মারুফা বেগম বলেন, পুলিশ তার স্বামীকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেয়। মামলা করার পর থেকে তার স্বামী দিশেহারা হয়ে পড়েন। তিনি পাগলের মতো এখানে-সেখানে ছোটাছুটি শুরু করেন। তার স্বামীকে মামলা থেকে বাদ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ডেকে নিয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে হত্যা করা হয়। নূর আলম তার স্বামীর কাছ থেকে তিন লাখ টাকা নিয়েছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক গোলাম মোস্তফা বলেন, ইউনুস খুনের মূল পরিকল্পনাকারী নূর আলম। শনিবার রাতে রাজধানীর ওয়ারী এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। 

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ শাহ জামান বলেন, নূর আলমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। শ্যামপুর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, আসামির জবানবন্দিতে নূর আলমের নাম আসার পরপরই তাকে থানা থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। 

আরও পড়ুন

লিভার সিরোসিস কখন হয়

লিভার সিরোসিস কখন হয়

লিভার সিরোসিস একটি জটিল রোগ। সাধারণত লিভারের দীর্ঘমেয়াদি প্রদাহের কারণে ...

বাংলাদেশের নির্বাচনে পর্যবেক্ষক পাঠাবে ভারত

বাংলাদেশের নির্বাচনে পর্যবেক্ষক পাঠাবে ভারত

ভারত আগামী ৩০ ডিসেম্বর বাংলাদেশে সংসদ নির্বাচন পর্যবেক্ষণের জন্য প্রতিনিধিদল ...

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এগিয়ে যাবে দেশ

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এগিয়ে যাবে দেশ

প্রতি বছরই আসে ১৬ ডিসেম্বর, আসে বিজয়ের দিন। আবারও 'বিজয় ...

সিলেট বিভাগের ১৯ আসনে জয়-পরাজয়ে যত ফ্যাক্টর

সিলেট বিভাগের ১৯ আসনে জয়-পরাজয়ে যত ফ্যাক্টর

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট বিভাগের ১৯ আসন নিয়ে পুলিশের ...

টি২০-তেও দারুণ চমকের অপেক্ষা

টি২০-তেও দারুণ চমকের অপেক্ষা

দূরে মাইকে কোথাও বেজে চলেছে বিজয় দিবসে কচিকাঁচার কণ্ঠে আমার ...

সরব বাবলা, নীরব সালাহ উদ্দিন

সরব বাবলা, নীরব সালাহ উদ্দিন

ঢাকা-৪ আসনে নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যাপকভাবে এগিয়ে আছেন মহাজোটভুক্ত জাতীয় পার্টির ...

২৭ লাখ নারী ভোটার নিয়ে বিশেষ কৌশল ৩২ প্রার্থীর

২৭ লাখ নারী ভোটার নিয়ে বিশেষ কৌশল ৩২ প্রার্থীর

চট্টগ্রামের বন্দর-পতেঙ্গা আসনে ৫ লাখ ৮ হাজার ভোটারের প্রায় অর্ধেকই ...

রক্তিম অলরেডসে রং চটা ম্যানইউ

রক্তিম অলরেডসে রং চটা ম্যানইউ

কোন দলের রং বেশি লাল। রেড ডেভিলস নাকি অল রেডসদের। ...