মতিঝিলের ৪ ক্লাবে অভিযানে পুলিশ, টাকা মদ ক্যাসিনো সামগ্রী উদ্ধার

প্রকাশ: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯     আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

ক্লাবে ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানে পুলিশ- ফোকাস বাংলা

ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের ধারাবাহিকতায় এবার রাজধানীর মতিঝিলে চারটি ক্লাবে একযোগে অভিযান চালাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

রোববার বেলা সোয়া ৩টার দিকে মতিঝিলের আরামবাগ, দিলকুশা, মোহামেডান ও ভিক্টোরিয়া ক্লাবে শুরু হওয়া পুলিশের এই অভিযানে  ক্যাসিনো সামগ্রী, টাকা ও মদ উদ্ধার করা হয়েছে।

অভিযানের নেতৃত্ব আছেন পুলিশের মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) আনোয়ার হোসেন। তিনি সমকালকে বলেন, এসব ক্লাব থেকে ক্যাসিনোর বিভিন্ন সরঞ্জাম, টাকা ও মদ উদ্ধার করা হয়েছে।

ক্যাসিনো বন্ধ করার জন্যই এই অভিযান বলে জানান তিনি।

গত ১৮ সেপ্টেম্বর দুপুরে ফকিরাপুলের ইয়াংমেন্স ক্লাবে অবৈধ ক্যাসিনোতে চালানো অভিযানের মধ্য দিয়ে ক্যাসিনোর বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে র‌্যাব। সেখান থেকে দুই নারীসহ ১৪২ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

ওইদিনই গুলশানের বাসা থেকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইয়াংমেন্স ক্লাবের সভাপতি খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গ্রেফতার করা হয়। তার কাছ থেকে অবৈধ অস্ত্র, গুলি, মাদকও জব্দ করা হয়। পরে আরও কয়েকটি ক্লাবে অভিযান চলে।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয় ফোরামে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কতিপয় নেতার নানা অনিয়ম নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী নিজেদের পদ থেকে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন। প্রধানমন্ত্রীর ক্ষোভের পরই র‌্যাবের এই অভিযান শুরু হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, ঢাকায় ক্লাবভিত্তিক ক্যাসিনো বা জুয়ার আসর বন্ধের পর দেশজুড়ে শুরু হচ্ছে এই অভিযান। পুলিশ সদর দফতর থেকে সারাদেশে জুয়া আর জুয়াড়িদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এসপিদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মহানগর, জেলা ও উপজেলা থেকে শুরু করে গ্রাম পর্যন্ত জুয়ার গডফাদার, জুয়া বোর্ড পরিচালনায় জড়িত এবং জুয়াড়িদের এলাকাভিত্তিক তালিকা তৈরিও শুরু হয়েছে।