হলি আর্টিজান মামলার প্রত্যাশিত রায় হবে: মনিরুল ইসলাম

প্রকাশ: ২৫ নভেম্বর ২০১৯     আপডেট: ০৮ জানুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রত্যাশিত রায় হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। তিনি বলেন, এ মামলার বিচার কাজ শেষ পর্যায়ে, এখন কেবল রায় ঘোষণা বাকি। আমরা মনে করছি, হলি আর্টিজান হামলার পরিকল্পনা ও পরিকল্পনা বাস্তবায়নে যার যে পর্যায়ে ভূমিকা ছিল, তা চার্জশিটে উল্লেখ করেছি। সাক্ষ্য-প্রমাণের মাধ্যমে বিজ্ঞ আদালতে অভিযোগ প্রমাণ করতে পেরেছি। তাই আশা করছি, যার যে দায় ছিল সেই অনুযায়ী প্রত্যাশিত রায় হবে। সোমবার ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন মনিরুল ইসলাম। 

তিনি আরও বলেন, হলি আর্টিজান হামলা মামলার তদন্ত জটিল ছিল। কারণ, যারা হামলায় সরাসরি অংশ নিয়েছিল, তাদের মধ্যে পাঁচজন মারা গেছে। অনেকে গ্রেফতারের সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মারা গেছে। যারা এই হামলার মাস্টারমাইন্ড ছিল, সেই তামিম চৌধুরী, মেজর জাহিদ, মারজানসহ অনেকেই বিভিন্ন অভিযানে মারা গেছে। তারপরও যারা গ্রেফতার রয়েছে, তাদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য ও ঘটনাস্থলের কিছু আলামত বিশ্লেষণ করে সামগ্রিকভাবে একটি নিখুঁত ও বস্তুনিষ্ঠ অভিযোগপত্র দাখিলের চেষ্টা করেছি এবং আমরা সেটা করেছি।

মনিরুল ইসলাম বলেন, অন্যান্য জঙ্গি হামলার ঘটনায় দায়ের করা মামলার অধিকাংশের অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে। কিছু মামলার অভিযোগপত্র অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। আমরা পান্থপথের জঙ্গি হামলার অভিযোগপত্র দিয়েছি। এভাবে প্রায় সব মামলার তদন্ত শেষ করে বিভিন্ন দফতরে অনুমোদনের জন্য জমা দিয়েছি। আমরা আশা করি, এসব মামলার বিচার কাজ হলি আর্টিজান হামলার মামলার মতো দ্রুত শেষ হবে।

২০১৬ সালের ১ জুলাই রাতে গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় হামলা চালিয়ে বিদেশি নাগরিকসহ ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। এ সময় তাদের গ্রেনেড হামলায় দুই পুলিশ সদস্য নিহত হন। পরে সেনাবাহিনীসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে হামলায় অংশ নেওয়া পাঁচ জঙ্গি নিহত হয়।