চীনের নাগরিক খুন: ব্যবসায়িক অংশীদারকে জিজ্ঞাসাবাদ

প্রকাশ: ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

চীনা ব্যবসায়ী গাওজিয়ান

রাজধানীর বনানীর বাসায় চীনের নাগরিক গাওজিয়ান হুই হত্যায় জড়িতদের তিন দিনেও শনাক্ত করা যায়নি। জানা যায়নি হত্যার কারণ। তবে হত্যারহস্য উদ্‌ঘাটনে শুক্রবার গাওজিয়ানের ব্যবসায়িক অংশীদারকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। তার সঙ্গে সম্পর্কিত অন্য ব্যক্তিদেরও পর্যায়ক্রমে জিজ্ঞাসাবাদের আওতায় আনা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

বনানী থানার ওসি নূরে আযম মিয়া সমকালকে বলেন, গাওজিয়ানের ব্যবসায়িক অংশীদার ছিলেন এক নারী। হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে তিনি ঢাকায় এসেছেন। শুক্রবার তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন তদন্ত সংশ্লিষ্ট পুলিশ ও গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। নিহতের সঙ্গে কারও ব্যবসায়িক বা অন্য বিষয়ে বিরোধ ছিল কি-না তা জানার চেষ্টা করা হয়েছে। তবে উল্লেখযোগ্য কিছু জানা যায়নি।

বনানী এ-ব্লকের ২৩ নম্বর সড়কের ৮২ নম্বর বাসার ছয়তলায় ৬/বি ফ্ল্যাটে থাকতেন পাথর ব্যবসায়ী গাওজিয়ান। গত বুধবার বাসার পেছনের ফাঁকা স্থানে মাটিচাপা দেওয়া অবস্থায় তার লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় ওই রাতে তার ঘনিষ্ঠজন ঝাং শু হং বাদী হয়ে বনানী থানায় হত্যা মামলা করেন।

পুলিশ সূত্র জানায়, গাওজিয়ানের বাসা থেকে কিছু খোয়া না যাওয়ায় ধারণা করা হচ্ছে, ব্যবসায়িক বা ব্যক্তিগত বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়। তবে এখনও সেই বিরোধের ব্যাপারে স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যায়নি। নিহতের গৃহকর্মী, গাড়িচালক ও বাসার নিরাপত্তাকর্মীসহ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেও প্রয়োজনীয় তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে সম্ভাব্য সবগুলো সূত্র ধরেই কাজ করছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা। আশা করা হচ্ছে, দ্রুতই হত্যায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে।