ঢাকা শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

মাঝ বুড়িগঙ্গায় মশার কীটনাশক ছিটালেন কাউন্সিলর!

মাঝ বুড়িগঙ্গায় মশার কীটনাশক ছিটালেন কাউন্সিলর!

মাঝ বুড়িগঙ্গায় মশার কীটনাশক ছিটান কাউন্সিলর সাইদুল ইসলাম মাতবর। ছবি-সমকাল

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ৩১ আগস্ট ২০২৩ | ২১:৪৯ | আপডেট: ৩১ আগস্ট ২০২৩ | ২১:৫০

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৫৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাইদুল ইসলাম মাতবর মশক নিধনে গিয়ে বুড়িগঙ্গা নদীর পানিতে কীটনাশক ছিটিয়েছেন। গত সোমবার তিনি নৌকায় করে বুড়িগঙ্গা নদীতে ফগিং করেন। এ ঘটনার একটি ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে কাউন্সিলর লোকজন নিয়ে নদীর পরিষ্কার পানিতে ফগিং করেন। রহমতগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা মোরশেদ তালুকদার সমকালকে বলেন, ‘কাউন্সিলরের এ ঘটনা সবাইকে অবাক করেছে। নিজেকে জাহির করতে এসব করছেন তিনি।’

জানতে চাইলে কাউন্সিলর সাইদুল ইসলাম সমকালকে বলেন, ‘নদীর মাঝে পানিতে নয়, তীরে মশা মারা কীটনাশক ছিটিয়েছি। বৃষ্টির পানি নদীর ধারে জমেছিল। সন্ধ্যায় নদীর ধারে স্থানীয়রা বসে থাকেন। তাদের সুরক্ষায় এটি করা হয়েছে।’ তবে ভিডিওতে মাঝ নদীতে ফগিং করতে দেখা যাচ্ছে– এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘ওয়ার্ডের বাসিন্দারা বিষয়টি ইতিবাচকভাবে না নিলে, আর করব না।’

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও কীটতত্ত্ববিধ কবিরুল বাশার সমকালকে বলেন, ‘নদীর ধারে পানি জমলে, মশা জন্ম নিতে পারে। তবে পানিতে স্রোত থাকলে মশা জন্মায় না। স্রোতের পানিতে কীটনাশক স্প্রে করা হলে হিতে বিপরীত হতে পারে। নদীর জীববৈচিত্র্য ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।’

আরও পড়ুন

×