ঢাকা শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪

সমালোচনায় ইলন মাস্ক

জীবনী: মেয়ে ‘কমিউনিস্ট’

সমালোচনায় ইলন মাস্ক

--

প্রকাশ: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | ১৮:০০

ইলন মাস্কের জীবনী ‘ইলন মাস্ক’ প্রকাশনা সংস্থা সাইমন অ্যান্ড শুস্টার থেকে গত ১২ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত হয়েছে। টাইম ম্যাগাজিনের সাবেক প্রধান সম্পাদক ওয়াল্টার আইজ্যাকসন বইটি লিখেছেন। এর আগে তিনি অ্যাপলের প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবসের জীবনী লিখেছিলেন, যা বেস্ট সেলার হয়েছিল। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে প্রকাশিত বইটির একটি অংশে আইজ্যাকসন দাবি করেছেন, এ ধনকুবের যেসব চেতনার বিরোধিতা করেন, সেসবের সম্পর্ক রয়েছে তাঁর মেয়ে ভিভিয়ান জেনা উইলসনের সঙ্গে।
অ্যামাজনের তথ্যমতে, প্রকাশের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ৬০০ পৃষ্ঠার বইটি দেদার বিক্রি হতে শুরু করে এবং বেস্ট সেলার তালিকায় জায়গা করে নেয়।
ইলন মাস্কের শৈশব ও কৈশোর খুব ভালো ছিল না। বাবার নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এসব কথা তাঁকে নিয়ে লেখা আগের জীবনীমূলক বই ও নিবন্ধের সূত্রে অনেকেই জানেন। এ বইটিতে অনেক অজানা কথা, ঘটনা ও ব্যাখ্যা সন্নিবেশিত হয়েছে। বই অনুসারে, মাস্ক মোট ১০ সন্তানের জনক। এর মধ্যে দুটি সন্তানের জন্ম তাঁর দান করা স্পার্ম থেকে।
ইলন মাস্ককে উদ্ধৃত করে আইজ্যাকসন লিখেছেন, স্পেস এক্সের প্রতিষ্ঠাতা মাস্ক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার কিনে তাঁর নাম পরিবর্তন করে এক্স করেছিলেন। তাঁর মেয়ে ভিভিয়ান ১৬ বছর বয়সে নিজেকে ট্রান্সজেন্ডার বলে ঘোষণা করেন। সেই সঙ্গে তিনি প্রগতিশীল মার্ক্সবাদী মতাদর্শ ধারণ করেন। মেয়ের এই অবস্থান মাস্ক মেনে নেননি। তিনি ভিভিয়ানকে ‘উওক মাইন্ড ভাইরাস’ বা জাগ্রত সত্তা ভাইরাস বলে অভিহিত করেন। মাস্ক বলেন, সে (ভিভিয়ান) শুধু সমাজতন্ত্রেই আবদ্ধ থাকেনি। সে পুরোদস্তুর একজন কমিউনিস্ট। যারা মনে করে, ধনী ব্যক্তিরা সব খারাপ। আমি অনেকবার তার সঙ্গে আলাপ করার চেষ্টা করেছি, কিন্তু ও আমার সঙ্গে সময় কাটাতে চায় না।’


আরও পড়ুন

×