এমবিবিএস পরীক্ষায় 'পাস করতে না পেরে আত্মহত্যা'

প্রকাশ: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

রাজধানীর মগবাজারে বাসা থেকে এক নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে; এমবিবিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে না পেরে তিনি গলায় ফাঁস দেন বলে জানিয়েছেন তার স্বামী।

শুক্রবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। উম্মে ফাহিমা হোসেন দিবা (২৬) বড় মগবাজার এলাকার ইস্টার্ণ টিউলিপ ভবনের একটি ফ্ল্যাটে স্বামী শরীফ শাহরিয়ার শুভর সঙ্গে থাকতেন।

রমনা থানার এসআই মামুনুর রশিদ জানান,  শুক্রবার রাতে নিজের ঘরসংলগ্ন বাথরুমে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দেন দিবা। পরে বাড়ির লোকজন তার ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পায়।

তিনি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ শনিবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

এসআই মামুনুর রশিদ জানান- স্বজনরা জানিয়েছেন, আদ দ্বীন মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস শেষ বর্ষের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে না পারায় দিবা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার রামদিয়া এলাকায়। তার বাবার নাম গাজী দেলোয়ার হোসেন।

মৃতের স্বামী শরীফ শাহরিয়ার শুভর ভাষ্য, এমবিবিএস পরীক্ষায় পাস করতে ব্যর্থ হওয়ার কারণেই আত্মহত্যা করেন দিবা। তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ বা অন্য কোনো বিরোধ ছিল না।