পূর্বশত্রুতার জেরে হাতিরঝিলে কিশোর খুন

প্রকাশ: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

পূর্বশত্রুতার জেরে রাজধানীর হাতিরঝিলে রাকিব হোসেন শিপন নামে এক কিশোরকে ছুরিকাঘাতে খুন করেছে তার বন্ধুরা। একই সঙ্গে আব্দুর রহমান মানিক নামে এক কিশোরকে ছুরিকাঘাতে আহত করা হয়েছে। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছেন স্বজনরা। রোববার রাত সাড়ে ৯টায় এ ঘটনা ঘটে।

রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছেলের লাশের পাশে বসে আহাজারি করছিলেন মা শেফালি বেগম। আর্তনাদ করে তিনি বলেন, বছর দেড়েক আগে বন্ধুদের সঙ্গে তার ছেলে শিপনের দ্বন্দ্ব হয়। তবে কী কারণে দ্বন্দ্ব হয়, তা তিনি জানাননি। দ্বন্দ্বের জেরে শিপনকে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়েছে।

শিপনের বাবা সাইদুল ইসলাম সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক। শিপন এক সময় মোটরসাইকেল গ্যারেজে কাজ করত। তাদের বাসা মগবাজার মধুবাগের তিন নম্বর গলিতে। গ্রামের বাড়ি নীলফামারী। আহত মানিক মোটরসাইকেল গ্যারেজে কাজ করে। বাসা মগবাজার বাগানবাড়ি এলাকায়। মানিক ও শিপন বন্ধু।

পুলিশ জানিয়েছে, রাত সাড়ে ৯টার দিকে হাতিরঝিলে মোটরসাইকেল চালাচ্ছিল মানিক। তার পেছনে বসেছিল শিপন। এ সময় হাতিরঝিলের মধুবাগ ব্রিজের কাছে তাদের মোটরসাইকেল থামিয়ে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে কয়েক কিশোর-যুবক। রক্তাক্ত হয়ে রাস্তায় পড়ে যায় তারা। এ সময় হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পথচারীরা তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। রাত সাড়ে ১১টার দিকে চিকিৎসক শিপনকে মৃত ঘোষণা করেন। তার বুকের ডান পাশে একাধিক ছুরি মারা হয়েছে। এতে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। আহত মানিককে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তার ডান হাত ও পেটে ছুরিকাঘাত করা হয়।

মানিক হাসপাতালে সাংবাদিকদের জানায়, হামলাকারীদের সঙ্গে তার কোনো শত্রুতা নেই। শিপনের সঙ্গে থাকায় তার ওপরও হামলা চালানো হয়েছে।

হাতিরঝিল থানার ওসি আবদুর রশিদ সমকালকে বলেন, পূর্বশত্রুতার জেরে হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। শত্রুতার কারণ জানা যায়নি। তবে হামলাকারী কয়েকজনের বিষয়ে তথ্য পাওয়া গেছে। তাদের গ্রেপ্তার করতে রাতেই অভিযান শুরু হয় বলে জানান তিনি।