'ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে ঘরবাড়িতে ১০ মিনিট পরিচ্ছন্নতা চালান'

প্রকাশ: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

জাতীয় প্রেসক্লাবে বুধবার নাগরিক সংলাপে বক্তব্য রাখেন (ডিএনসিসি) নবনির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম- সমকাল

জাতীয় প্রেসক্লাবে বুধবার নাগরিক সংলাপে বক্তব্য রাখেন (ডিএনসিসি) নবনির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম- সমকাল

এডিস মশার হাত থেকে বাঁচতে সপ্তাহে একদিন ১০ মিনিট নিজের ঘরবাড়িতে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চালাতে নগরবাসীর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) নবনির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, সপ্তাহের যেকোনো একটি দিন সবাই মিলে ১০ মিনিটের জন্য নিজের ঘরবাড়িতে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চালালে এডিস মশা বংশবিস্তার করতে পারবে না। পাশাপাশি ডিএনসিসির পক্ষ থেকেও প্রয়োজনীয় কার্যক্রম চলবে। এভাবে সবাই মিলে কাজ করলে ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া থেকে নগরবাসী মুক্ত থাকতে পারবেন।

বুধবার রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে আয়োজিত 'করোনাভাইরাস ও ডেঙ্গু' বিষয়ক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আতিকুল ইসলাম বলেন, দেশে আমরা যেখানে-সেখানে ময়লা ফেলি। কিন্তু বিদেশে গেলে ফেলি না। আবার রাস্তাঘাটে কোনো জায়গায় সিগন্যাল মানি না। কিন্তু ক্যান্টনমেন্টের ভেতরে গেলেই সিগন্যাল মানি। কারণ সেখানে সিগন্যাল না মানলে কঠোর শাস্তি হয়। এসব নিয়ে আমাদের চিন্তা করতে হবে। নিজেরা আগে সচেতন হতে হবে।

সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের (সিডিসি) পরিচালক ডা. সানিয়া তহমিনা বলেন, গত মৌসুমে ডেঙ্গু নিয়ে সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়েছে। এবার চ্যালেঞ্জ আরও বড়। করোনাভাইরাসের কারণে অনেকেই সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়ার কথা বলছেন। কিন্তু আন্তর্জাতিক আইনে তো সেটা সম্ভব না। যেসব স্থলবন্দর ও বিমানবন্দর দিয়ে মানুষ যাতায়াত করছেন, তাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। এখনও বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের খবর পাওয়া যায়নি। তারপরও কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল ও বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হাসপাতাল প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

ইন্ডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটির উপাচার্য মিলান পাগন বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ে আমরা আতঙ্কের মধ্যে আছি। খুব দ্রুতই যদি করোনা নিয়ন্ত্রণে না আসে, তাহলে সারা বিশ্বেই প্রভাব পড়বে। বহুবিধ সমস্যা সৃষ্টি হবে। ঢাকা বেশি জনঘনত্বের শহর হওয়ার কারণে ঝুঁকি আরও বেশি। কাজেই সচেতনতা এখন বেশি জরুরি হয়ে পড়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. শাহ এম ফারুক পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে করোনাভাইরাস সম্পর্কে অবহিত করেন। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কী কী সচেতনতা গ্রহণ করা প্রয়োজন, সে ব্যাপারেও তুলে ধরেন তিনি।

সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন আব্দুল খালেক বলেন, ডেঙ্গুর ঝুঁকি তো আমাদের আছেই। এখন করোনাভাইরাসের ঝুঁকিও সৃষ্টি হয়েছে। এখনই সচেতনতামূলক কর্মসূচি নিলে কিছুটা হলেও কাজে আসবে।

এদিকে বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা), বারসিক ও কোয়ালিশন ফর দ্য আরবান পুওর (কাপ)-এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত 'জলবায়ু পরিবর্তন, নগর দরিদ্রদের আবাসন :নগর কর্তৃপক্ষের ভূমিকা' শীর্ষক নাগরিক সংলাপে আতিকুল ইসলাম বলেন, বস্তিবাসী আমাদের অবিচ্ছেদ্য অংশ। তারা বেশি কিছু চাইছেন না, চাইছেন মাথা গোঁজার ঠাঁই। প্রধানমন্ত্রীও নির্দেশ দিয়েছেন বস্তিবাসীর জন্য দৈনিক, সাপ্তাহিক ও মাসিক ভাড়ার ভিত্তিতে আবাসনের ব্যবস্থা করতে।

মেয়র বলেন, মিরপুরের গাবতলী বাসস্ট্যান্ডের পেছনে পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের আবাসন ব্যবস্থার কাজ শুরু হয়েছে। ২০২১ সালের মধ্যে তা আমরা হস্তান্তর করতে পারব। এছাড়া রাজধানীর কড়াইল বস্তিতে ৯২ একর জমি বেদখল আছে। ইতোমধ্যে এ জমির ব্যাপারে খোঁজ-খবর নেওয়া শুরু করেছি।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ও নগর বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক নজরুল ইসলাম বলেন, প্রতি বছর ঢাকায় ছয় লাখ মানুষ আসে। সে হিসেবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে প্রতি বছর তিন লাখ নতুন মানুষ যুক্ত হচ্ছে। জলবায়ু পরিবর্তনে আগামী ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে দেশের চার ভাগের এক ভাগ (দক্ষিণাঞ্চল) ডুবে যাবে। তখন ওইসব এলাকার মানুষ সমতলের দিকে আসবে। কোনো ব্যবস্থা না নিলে ভবিষ্যতে প্রতি বছর ঢাকা উত্তরেই চার-পাঁচ লাখ মানুষ আসবে। যাদের বেশিরভাগই দরিদ্র।

সভাপতির বক্তব্যে পবার সভাপতি আবু নাসের খান বলেন, আমাদের অর্থনীতি দ্রুত সমৃদ্ধ হচ্ছে। অবকাঠামোগত উন্নয়নও হচ্ছে, তবে তার বেশিরভাগই হচ্ছে অপরিকল্পিতভাবে। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে মানুষ ঢাকামুখী হচ্ছে, যাদের ৪০ শতাংশই দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপত্য ও পরিকল্পনা অনুষদের সাবেক ডিন শহীদুল আমিন, উন্নয়ন কর্মী জাহাঙ্গীর আলম, দিবালোক সিংহ প্রমুখ।