রাজধানীর বনানীতে ব্যবসায়ী শেহজাদ খান হাসান খুনের ঘটনায় জড়িত বাবু হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। রোববার রাতে উত্তর বাড্ডা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তাকে। 

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জানান, হোটেল সুইট ড্রিমের মদের বিল দেওয়াকে কেন্দ্র করে দু'জনের মধ্যে সৃষ্ট বিরোধে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।

ডিবি উত্তর বিভাগের উপ-কমিশনার মশিউর রহমান সমকালকে বলেন, 'শেহজাদ খান ও বাবু হাওলাদার একসঙ্গে ওই হোটেলে যান। মদপান শেষে বিল দেওয়ার সময় তাদের মধ্যে বাগ্‌বিতণ্ডা ও হাতাহাতি হয়। এক পর্যায়ে শেহজাদকে মারধর করেন বাবু। এতেই মৃত্যু হয় তার। তবে বাবুর দাবি, হত্যার কোনো উদ্দেশ্য তার ছিল না। ওই পরিস্থিতিতে উত্তেজিত হয়ে তিনি এ ঘটনা ঘটান।

গত ১১ মার্চ রাত সোয়া ২টার দিকে বনানী কাঁচাবাজার এলাকায় শেহজাদকে মারধর করে অচেতন অবস্থায় ফেলে যায় তার সঙ্গীরা। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উত্তরা ক্রিসেন্ট হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় বনানী থানায় দায়ের মামলাটির তদন্ত করছে ডিবি।

ডিবি সূত্র জানায়, বাবু হাওলাদার সেদিন রাত ২টার দিকে হোটেল সুইট ড্রিমের বার থেকে বের হয়ে শেহজাদকে নিয়ে ষষ্ঠ তলায় গিয়ে মদপান করেন ও নাচ দেখেন। এতে তাদের প্রায় আট হাজার টাকা বিল আসে। বিল দেওয়ার সময় তিনি শেহজাদকেও কিছু টাকা দিতে বলেন। তা দিতে আপত্তি করেন শেহজাদ। এ নিয়েই তাদের মধ্যে বিরোধের সূত্রপাত। তারা আলাদাভাবে হোটেলের নিচে নেমে পরস্পরকে আক্রমণ করেন। হোটেলের কর্মীরা তাদের মারামারি থামিয়ে দিলে হোটেল থেকে রাস্তায় নেমে ফের হাতাহাতি শুরু করেন তারা। এ সময় শেহজাদ রাস্তায় পড়ে অচেতন হয়ে গেলে বাবু পালিয়ে যান।

ডিবির গুলশান জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার গোলাম সাকলায়েন জানান, শেহজাদ হত্যায় প্রাথমিকভাবে শুধু বাবু হাওলাদারের সম্পৃক্ততাই পাওয়া গেছে। এতে আরও কেউ জড়িত ছিল কিনা, খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সম্পৃক্ততা পেলে তাদেরও গ্রেপ্তার করা হবে।

নিহতের চাচাতো বোন ফারজানা আক্তার শারমিন জানান, যন্ত্রাংশ আমদানির ব্যবসা করতেন শেহজাদ। তার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর থানার ভাগলপুর গ্রামে। বাবার নাম নজরুল ইসলাম। দুই ভাই তিন বোনের মধ্যে ছিলেন দ্বিতীয়। রাজধানীর ভাটারার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার ৫ নম্বর সড়কের একটি বাড়িতে দ্বিতীয় স্ত্রী ফারিয়া জাহান দীপ্তির সঙ্গে থাকতেন তিনি।

বিষয় : মদপানের বিল নিয়ে বিরোধ ব্যবসায়ী খুন গ্রেপ্তার

মন্তব্য করুন