করোনাভাইরাস থামিয়ে দিয়েছে নিম্ন আয়ের মানুষের জীবিকা নির্বাহের পথ। অভাবের সংসারে নতুন করে যোগ হওয়া এই সংকটে বেঁচে থাকা কঠিন হয়ে পড়েছে তাদের। এমন অসহায় মানুষগুলোর পাশে দাঁড়িয়েছে'মিশন সেভ বাংলাদেশ'।

মঙ্গলবার রাজধানীর উত্তরার দক্ষিণখানে আরও ২০০ অটো চালকের পরিবারকে ১০ দিনের খাদ্যসামগ্রী প্রদান করা হয় এই উদ্যোগের মাধ্যমে। প্রত্যেক পরিবারকে দেওয়া হয় ১০ কেজি চাল, এক কেজি ডাল, দুই কেজি আলু, এক কেজি সয়াবিন তেল, এক কেজি লবণ, এক কেজি চিড়া ও সাবান।

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে বাংলাদেশেও মানুষের চলাচলে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করেছে সরকার। এতেবেশি সমস্যায় পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ। তাদের পাশে দাঁড়াতেই সমকাল, সেবা এক্সওয়াইজেড ও দ্য ডেইলি স্টারের উদ্যোগ 'মিশন সেভ বাংলাদেশ'। এই উদ্যোগে এখন পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে প্রায় দুই হাজার ৪শ' পরিবার পেয়েছে খাদ্য সহায়তা।

দক্ষিণখানে 'মিশন সেভ বাংলাদেশ'-এর খাদ্য সহায়তা দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশের এই এলাকার এডিসি হাফিজুর রহমান রিয়েল ওদক্ষিণখান থানার অপারেশন অফিসার সরওয়ার। 'মিশন সেভ বাংলাদেশ' স্বেচ্ছাসেবীদের মাধ্যমে সহায়তা প্রদান করা হয়।


দক্ষিণখানের অটোচালক ফরিদ জানান, তিন মেয়ে ও স্ত্রী নিয়ে তার সংসার। প্রতিদিন আয় করে চাল-ডাল ও তরকারি কিনে ঘরে ফিরলে রান্না হয়। কিন্তু লোকজন বাইরে বের না হওয়ায় তিনদিন ধরে অনটনের মধ্যে রয়েছেন। ১০ দিনের খাবার পেয়ে স্বস্তি প্রকাশ করেন তিনি।

এদিকে করোনা বিষয়ক সচেতনতার অংশ হিসেবে 'মিশন সেইভ বাংলাদেশ' এর ১০ স্বেচ্ছাসেবী মঙ্গলবার রাজধানীর বসুন্ধরা গেইট থেকে হাতিরঝিল অংশে এক হাজার মাস্ক বিতরণ এবং সামাজিক দূরত্ব রক্ষায় প্রচারণা চালান। 'মিশন সেভ বাংলাদেশ'উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন, নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত থাকবে।

এ উদ্যোগেঅর্থ ও অন্যান্য সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে এসেছে আইপিডিসি ফাইন্যান্স, পিএফডিএ, স্বপ্ন, এসএসএল কমার্স, মিরপুর ডিওএইচএস সোসাইটি, ডানো, গুলশান সোসাইটি, পাঠাও, ডাবর বাংলাদেশ, তরুণ ডিজিটাল, ইউনিমার্ট, জেসিআই ঢাকা নর্থ, কর্ম, এডিএ, নিজের বলার মতো একটা গল্প, রবি টেন মিনিট স্কুল, সেফ হ্যান্ডস, ডেভোটেক, ডাক্তার ভাই, উইন্ডমিল, অমিকন গ্রুপ, জাস্টস্টোরিজ, মেমোরিলেন, এডুহাইভ, লেকচার পাবলিকেশনস লিমিটেড, ই-কুরিয়ার, মহাখালী ডিওএইচএস সোসাইটি, রোয়ার বাংলা, বনানী সোসাইটি, চ্যারিটি রাইট, ভ্রুম, স্পাইক স্টোরি, পেপারফ্লাই, বঙ্গ, মাস্টহেড পিআর, সিএনআই, অ্যাঞ্জেল শেফ, স্মার্টিফায়ার, জেসিআই ঢাকা সাউথ, শাশা ডেনিমস, অলিম্পিক, চল ঘুরি, আডন কমিউনিকেশন, পপ অব কালার, আর্থমুভিং সলিউশন, মাইন্ডম্যাপার, ট্রাক কোথায়, মেন্টরস, অসীম এন্টারপ্রাইজ, হাই ভোল্টেজ লিমিটেড, সি থ্রি সিপটি, গ্রো অ্যান্ড এপেল, হরলিপ, সামিট কমিউনিকেশন লিমিটেড, সেইলর, টেকনো ড্রাগস লিমিটেড, নন্দ-দুলাল মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ফাউন্ডেশন, জেসিআই চিটাগং কসমোপলিটান, ওয়ান পার্সেন্ট ফাউন্ডেশন, অ্যারোলিংক, ওয়ান্ডার ওমেন, রেনাটা লিমিটেড, এস ম্যানেজার, এস বিজনেস, মমতাজ হারবাল ও এপিলগ। এখন পর্যন্ত মিশনের তহবিল সংগ্রহ হয়েছে ৫৬ লাখ ৩৩ হাজার ৩০৯ টাকা।

ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান সামর্থ্য অনুযায়ী 'মিশন সেভ বাংলাদেশ' উদ্যোগে আর্থিক সহায়তা দিয়ে যুক্ত হতে পারেন। বিস্তারিত জানতে অথবা অনুদান দিতে ভিজিট করুন-(https://samakal.com/MissionSaveBangladesh) এ ঠিকানায়।