আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের জন্মদিনে দুঃস্থ প্রতিবন্ধীদের মাঝে কাপড় ও খাবার বিতরণ করেছে ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগ।

বৃহস্পতিবার পুরান ঢাকার গেন্ডারিয়ার ধূপখোলা এলাকায় ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী সারোয়ার হোসেন বাবুর উদ্যোগে এই কর্মসূচি পালিত হয়।

যুবলীগ নেতা বাবু পুরান ঢাকার বিভিন্ন এলাকার ২০০ প্রতিবন্ধী ভিক্ষুক ও ভাসমান দুঃস্থ প্রতিবন্ধীর হাতে খাবার ও উপহার সামগ্রী তুলে দেন। ওই সময়ে বিভিন্ন ওয়ার্ড যুবলীগ নেতারা উপস্থিত ছিলেন। করোনা সংকট শুরুর পর দরিদ্র মানুষের সহায়তায় কাজ করে চলেছেন বাবু। 

এর আগে রোজায় তিনি ভাসমান মানুষদের মধ্যে প্রতিরাতে রান্না করা সেহেরি ও সন্ধ্যায় ইফতার বিতরণ করেন। ঈদের সময়ে চার শতাধিক ছিন্নমূল নারী ও শিশুকে তিনি রান্না করা খাবার বিতরণ করেন। তা ছাড়া চলমান সংকটে অসহায় মানুষের বাসায় গিয়ে তার টিম খাদ্যসামগ্রী পৌছে দিচ্ছে।  

ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী সারোয়ার হোসেন বাবু বলেন, যুবলীগ উপমহাদেশের সর্ব বৃহৎ যুব সংগঠন হিসেবে পরিচিত। সংগঠনটির হারানো গৌরব, ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার অর্পিত দায়িত্ব শেখ ফজলে শামস পরশের সযত্নে পালন করেছেন। যুবলীগকে একটি মানবিক সংগঠন হিসেবে গড়ে তুলতে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, দেশে করোনা প্রাদুর্ভাবের পর থেকেই জরুরি বৈঠক করে প্রত্যেক কর্মীকে মানুষের পাশে দাঁড়োনোর নির্দেশ দেন যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ এবং সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল। এরই ধারাবাহিকতায় ২ জুলাই সংগঠনের চেয়ারম্যানের জন্মদিনে তিনি অসহায় প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়ালেন।