নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে বাংলাদেশের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা উচিত বলে মনে করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা।

বৃহস্পতিবার ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে উত্তরা ৫ নম্বর সেক্টরে আইইএস স্কুল অ্যান্ড কলেজে ভোট দেওয়ার পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে তিনি এই মন্তব্য করেন।

সিইসি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের বিষয়ে আমি সবসময় বলি, এটা দেখতে হবে গ্লোবালি, কাজ করতে হবে লোকালি। যুক্তরাষ্ট্র-ইউরোপ থেকে ভালো সিদ্ধান্ত আমরা গ্রহণ করি। আমার একটা কথা, তাদেরও আমাদের থেকে শিক্ষা-দীক্ষা নেওয়া উচিত।

এর কারণ হিসেবে কে এম নূরুল হুদা বলেন, কারণ যুক্তরাষ্ট্র চার-পাঁচ দিনেও ভোট গণনা করতে পারে না। ইভিএমে আমরা ১০ মিনিটে ভোট গণনা করে কেন্দ্রে ফল ঘোষণা দিয়ে দেই। এই জিনিস যুক্তরাষ্ট্রে নেই।

এর আগে মঙ্গলবার রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির মহাসচি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সরকার ও নির্বাচন কমিশনকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন থেকে শিক্ষা নেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন।

ওইদিন তিনি বলেন, সরকার ও নির্বাচন কমিশনকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন থেকে শিক্ষা নেওয়া উচিত। একটি রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান নির্বাচন কমিশন আর এই নির্বাচন কমিশন যদি শক্তিশালী না হয়, তারা যদি সরকারের প্রভাবমুক্ত না হয় তবে সুষ্ঠু নির্বাচন করা সম্ভব নয়।

সাংবাদিকদের সিইসি আরও বলেন, ভোটাররা কেন্দ্রে যাবেন নিজের গরজে। নির্বাচন ব্যবস্থাপনা ঠিকঠাক আছে। কোথাও কোনো অনিয়ম হয়নি। একটি কেন্দ্রও কেউ দখল করেনি। কেউ পাঁয়তারা করেনি।

বিষয় : সিইসি কে এম নূরুল হুদা

মন্তব্য করুন