ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

মাদক মামলার আসামিকে গুলি করে হত্যা

মাদক মামলার আসামিকে গুলি করে হত্যা

সমকাল ও মিটফোর্ড প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১৭ অক্টোবর ২০২৩ | ২১:৪০ | আপডেট: ১৭ অক্টোবর ২০২৩ | ২১:৪০

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরের মুসলিমবাগ এলাকায় দুর্বৃত্তের গুলিতে মো. রমজান ওরফে পেট কাটা রমজান (৪৩) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ (মিটফোর্ড হাসপাতাল) মর্গে পাঠানো হয়। তিনি মাদক ও খুনের মামলার আসামি ছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

কামরাঙ্গীরচর থানার ওসি মোহাম্মদ মোস্তফা আনোয়ার সমকালকে বলেন, কে বা কারা, কেন তাঁকে হত্যা করেছে, তা এখনও জানা যায়নি। তাঁর বিরুদ্ধে অন্তত দুটি মাদক-সংক্রান্ত মামলা রয়েছে। এ ছাড়া একটি হত্যা মামলায় তিনি বেশ কিছুদিন কারাগারেও ছিলেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। অপরাধী চক্রের নিজেদের মধ্যে বিরোধের জের ধরে খুনের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। এ বিষয়ে নিহতের বোন মোছা. সনি অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। হত্যায় জড়িতদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।

পুলিশ সূত্র জানায়, কামরাঙ্গীরচরের মুসলিমবাগ এলাকার ৭ নম্বর গলির একটি বাসায় থাকতেন রমজান। মাদক কারবারসহ নানা অপরাধে তাঁর সম্পৃক্ততার অভিযোগ রয়েছে। সোমবার গভীর রাতে মুসলিমবাগ লবণ ফ্যাক্টরি এলাকার রাস্তায় তাঁর রক্তাক্ত নিথর দেহ দেখতে পায় লোকজন। তাঁর বাবার নাম আব্দুর রশিদ। 

কামরাঙ্গীরচর থানার এসআই রাধারমণ ভৌমিক বলেন, রাত ৩টার দিকে লবণ ফ্যাক্টরি এলাকায় দায়িত্ব পালনের সময় খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে ওই ব্যক্তিকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে তাঁর নাম-ঠিকানা জানা যায়। তাঁর বাসা লালবাগে, তবে এখানে পূর্বপরিচিত এক পরিবারের সঙ্গে থাকতেন। স্ত্রীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় আরও আগে থেকে তিনি আলাদা থাকেন। রমজানের বুকের বাঁ পাশে ও কাঁধে গুলির চিহ্ন ছিল। সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির পর লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সূত্র জানায়, মাদক কারবার ও এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধের জের ধরে রমজানকে হত্যা করা হয় বলে ধারণা তদন্ত-সংশ্লিষ্টদের। সাম্প্রতিককালে বিভিন্ন এলাকায় ফিরে আসছে পলাতক সন্ত্রাসীরা এবং মাঝেমধ্যেই তাদের প্রকাশ্যে দেখা যাচ্ছে। কেউ কেউ হারানো ‘সাম্রাজ্য’ ফিরে পাওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। এ নিয়ে বিরোধে খুনাখুনিও হচ্ছে। 

গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাতে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলে সন্ত্রাসী তারিক সাঈদ মামুনের ওপর হামলা চালায় প্রতিপক্ষ। এতে মামুন বেঁচে গেলেও গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক আইনজীবী মারা যান। আহত হন আরও এক পথচারী।

আরও পড়ুন

×