সিলেটে অগ্রণী ব্যাংক কর্মকর্তা শেখ মওদুদ আহমেদ খুনের বিচার দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২০ ফেব্রুয়ারি অটোরিকশা চালকদের হামলায় তিনি মারা যান। মঙ্গলবার বিকেলে অগ্রণী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। একই দাবিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে স্মারকলিপি দিয়েছে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট অগ্রণী ব্যাংক ইউনিট।

রাজধানীর মতিঝিলে প্রধান কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত মানবন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় অগ্রণী ব্যাংকের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, অফিসার সমিতি, অফিসার ঐক্য ফোরাম, স্বাধীনতা ব্যাংকার্স পরিষদ, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের নেতাসহ প্রায় ৫০০ জন অংশ নেন। প্রতিবাদ সভা থেকে, অবিলম্বে অটোরিকশা চালক হাছানুরসহ জড়িতদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টামূলক শাস্তির দাবি জানান। বিচার দাবিতে ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়, বিভিন্ন সার্কেল, আঞ্চলিক কার্যালয়, কর্পোরেট শাখা ও শাখাগুলোতে কালো ব্যাজ ধারণের পাশাপাশি প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা জানান, গত ২০ ফেব্রুয়ারি সিলেটের বন্দরবাজারে হরিপুর গ্যাস ফিল্ড শাখার ক্যাশ অফিসার মওদুদ আহমেদের সঙ্গে অটোরিকশা চালক হাছানুরের বাগ্‌বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে হাছানুরসহ কয়েকজন মওদুদের ওপর হামলা করে। গুরুতর আহত মওদুদ আহমেদকে এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে সেখানেই মারা যান। এ ঘটনা ২১ ফেব্রুয়ারি মারা যাওয়া ব্যাংক কর্মকর্তার বড় ভাই আবদুল ওয়াদুদ অটোরিকশা চালক হাছানুরের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতপরিচয় আরও কয়েকজন আসামি করে সিলেটের কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন। নিহত মওদুদের বাড়ি ময়মনসিংহের গৌরীপুরের টেংগুরিপাড়া গ্রামে।