কারাগারে লেখক মুশতাক আহমেদকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, সরকার, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সঙ্গে জড়িত প্রত্যেকেই এই হত্যার জন্য দায়ী।

শুক্রবার রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে লেখক মুশতাক আহমেদের গায়েবানা জানাজার আগে এক সমাবেশে ডা. জাফরুল্লাহ এ কথা বলেন। একই দিন রাজধানীর তোপখানা রোডে বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সভা ও জাতীয় কাউন্সিলে তিনি বলেন, 'ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন দিয়ে অপরাধ দমন করা যায় না। এই কালো আইনকে কবর দেওয়ার সময় এসেছে।'

মুশতাক 'হত্যার বিচার' ও ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট বাতিলের দাবিতে শাহবাগে আয়োজিত কর্মসূচিতে আরও বক্তব্য দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষক ড. আসিফ নজরুল, ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি প্রমুখ।

বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সভা ও জাতীয় কাউন্সিলে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী মুশতাক আহমেদের পরিবারকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আহ্বানও জানান।