করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে লকডাউন বাস্তবায়নে সোমবার মিরপুরে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের চলা অভিযানের সময় সাংবাদিককে হেনস্থার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরাম, বাংলাদেশ।

সংগঠনের সভাপতি মতিন আব্দুল্লাহ ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সোহেল মামুন মঙ্গলবার এক যুক্ত বিবৃতিতে এই নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। 

তারা বলেন, গত ৫ এপ্রিল দুপুর সাড়ে ১২টায় মিরপুর থানার পেছনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছিলেন ডিএনসিসির ম্যাজিস্ট্রেট সালেহা বিনতে সিরাজ। এ সময় ইউএনবির নিজস্ব প্রতিবেদক এম জাহাঙ্গীর আলম মোবাইল কোর্টের কার্যক্রমের ভিডিও ধারণ করতে থাকলে ম্যাজিস্ট্রেট বাধা দেন। জাহাঙ্গীর আলম পরিচয় দিয়ে পরিচয়পত্র দেখানোর পরও ভিডিও ধারণ করতে তাকে বাধা দেয়া হয়। এ সময় মোবাইল কোর্টের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব পালনকারী মিরপুর থানার এসআই সাদ্দামও জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি ডিএনসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা এ এস এম মামুনকে তাৎক্ষণিকভাবে ফোনে জানান জাহাঙ্গীর আলম। এএসএম মামুন বিষয়টি ম্যাজিস্ট্রেটকে অবহিত করলেও জাহাঙ্গীর আলমকে মোবাইল কোর্টের কার্যক্রমের ভিডিও ধারণ করতে দেননি। কোনো ছবিও তুলতে দেননি।

নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরাম মনে করে, সংবাদমাধ্যমের কাজ সঠিক তথ্য দেশের মানুষের কাছে উপস্থাপন করা। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের এমন অপেশাদার আচরণ গণমাধ্যমকর্মীর তথ্য সংগ্রহের স্বাধীনতাকে বাধাগ্রস্ত করে, যা মোটেই কাম্য নয়। অবিলম্বে এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্নিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি করেন তারা। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

মন্তব্য করুন