প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেছেন, কঠোর লকডাউনের সময় পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে উচ্চ আদালতের বেঞ্চ বাড়ানো বা সব আদালত বন্ধ ঘোষণা করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে মামলার শুনানির একপর্যায়ে প্রধান বিচারপতি এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, দেশে ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনায় আইন হওয়ায় কোর্ট চালানো যাচ্ছে। না হলে কোর্ট বন্ধ করে দিতে হতো। এখনও ভারত, পাকিস্তানে এ আইন হয়নি। পাকিস্তানে এখনও ফিজিক্যাল কোর্ট হয়। এ অবস্থায় আমরা দৈনিক পরিস্থিতি দেখছি, পর্যবেক্ষণ করছি। পরিস্থিতির আলোকে আমরা সিদ্ধান্ত নেব। এ সময় করোনা পরিস্থিতিতে আইনজীবীসহ সবাইকে সতর্ক থাকতেও পরামর্শ দেন তিনি।

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে হাইকোর্টের চারটি বেঞ্চ চালু রাখা হয়েছে। বেঞ্চ বাড়ানোর দাবিতে আইনজীবীদের একাংশ মানববন্ধন ও মিছিল করে আসছে। অধস্তন আদালতে সীমিত পরিসরে ভার্চুয়ালি বিচারকাজ চলবে বলে জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।



মন্তব্য করুন