রাজধানীর কদমতলী এলাকার কিশোর গ্যাং নেতা 'কাইল্লা' মুরাদ ও 'বাঘা' রাজু। তাদের কেউ কিশোর নয়। এর পরও ওই এলাকায় কিশোরদের একটা বিশাল গ্রুপের নিয়ন্ত্রণ তাদের হাতে।

গ্রুপটি এলাকায় চাঁদাবাজি, চুরি, ছিনতাইসহ নানা অপরাধের সঙ্গে জড়িত। রোববার র‌্যাব ওই দুই নেতাকে গ্রেপ্তার করলে এসব তথ্য জানা যায়।

র‌্যাব-১০-এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মাহফুজুর রহমান জানান, ২২ এপ্রিল মুরাদ ও রাজুর নেতৃত্বে কদমতলীর ইন্টারনেট ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম ডালিমকে কুপিয়ে আহত করা হয়। ওই ঘটনায় মামলা হওয়ার পর এ গ্রুপটিকে চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার অভিযান শুরু হয়। পরে রোববার রাতে কদমতলীর পাটেরবাগ ইতালি মার্কেট এলাকা থেকে ওই দু'জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মাহফুজুর রহমান বলেন, স্থানীয় মুরাদপুর এবং পাটেরবাগ এলাকায় মুরাদ ও রাজুর কিশোর গ্যাং রয়েছে। এ চক্রটি চুরি, ছিনতাই, মারামারি ও চাঁদাবাজি করত। কেউ চাঁদা দিতে না চাইলে দলবল নিয়ে তাদের ওপর হামলা করা হয়। তারা কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য হলেও তাদের সবার বয়স ২০ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে। গ্রুপটির বাকি সদস্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।