ফিলিস্তিনের নিরীহ মানুষের ওপর ইসরায়েলের হামলা বন্ধের দাবি জানিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

রোববার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ফিলিস্তানীদের ওপর ইসরায়েল বাহিনীর হামলা অবিলম্বে বন্ধের দাবিতে আয়োজিত এক মানববন্ধনে সংগঠনটির নেতাকর্মীরা এই দাবি জানান। এসময় সেখানে ইসরায়েল প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহুর কুশপুত্তলিকা দাহ করেন তারা।

মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুলের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মো. আল মামুনের সঞ্চালনায় কর্মসূচিতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- ভাস্কর শিল্পী রাশা, সংগঠনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, ফিলিস্তিনের নিরীহ মানুষের ওপর ইসরায়েল বাহিনী যেভাবে নগ্ন হামলা করেছে আমরা খুবই উদ্বিগ্ন। তারা প্রকাশ্যে মানবতাবিরোধী অপরাধে লিপ্ত হয়েছে। এমন হীন কাজ আমরা কখনোই সমর্থন করি না। সম্প্রতি প্রায় ১৫০ জন ফিলিস্তানী নাগরিককে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে যা আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

তারা বলেন,  ওআইসি ও আরব লীগের নীরবতা আমাদেরকে ব্যথিত করেছে।  মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে গ্রেপ্তার করে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে বিচারের দাবি জানাচ্ছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। পাশাপাশি ফিলিস্তানী রাষ্ট্রের পূর্ণাঙ্গ স্বাধীনতা করতে হবে। ফিলিস্তানী নাগরিকদের স্বাধীনতা আন্দোলনের প্রতি আমরা পূর্ণাঙ্গ সমর্থন ও সংহতি জানাচ্ছি।

তারা আরও বলেন, ইসরায়েল বাহিনীর সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বিশ্ব জনমত গড়ে তুলতে হবে। জাতিসংঘসহ বিশ্ব সম্প্রদায়কে এই নৃশংস হামলার বিরুদ্ধে সোচ্চার ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানাচ্ছি। অন্যথায় বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ আরোও কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করবে।

সভাপতির বক্তব্যে আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, ফিলিস্তিনের নিরীহ মানুষের ওপর ইসরায়েল বাহিনীর বর্বরোচিত হামলা অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। ফিলিস্তিনের ওপর হামলাকারী ইসরায়েল বাহিনীর নগ্ন হামলা শতশত ফিলিস্তান নাগরিকের জীবন কেড়ে নিয়েছে। মুসলিমদের পবিত্র মসজিদ আল আকসায় হামলার মাধ্যমে   ইসরায়েল বাহিনী অত্যন্ত ঘৃণিত অপরাধ করেছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ফিলিস্তানী নাগরিকদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আমরা আহবান জানাচ্ছি।