চুরি করতে বাধা দেওয়ায় সুজন নামের এক নৈশপ্রহরীকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার রাজধানীর ভাসানটেকের পুরাতন কচুক্ষেত থেকে তুলে এনে শেরেবাংলা নগর এলাকায় নিয়ে তাকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় আরও একজন আহত হয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, পুরাতন কচুক্ষেতের জেসমিন টাওয়ার মার্কেটে নৈশপ্রহরী হিসেবে কর্মরত ছিলেন সুজন। রোববার ভোরে মার্কেটের পাশের একটি দোকান ভেঙে কয়েকটি ব্যাটারি নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছিল দুর্বৃত্তরা। এতে বাধা দেন সুজন ও আবদুল মজিদ নামের আরেক নৈশপ্রহরী। তাদের সঙ্গে দুর্বৃত্তদের ধস্তাধস্তি হয়। এ সময় মজিদ আহত হন এবং সুজনকে গলায় গামছা পেঁচিয়ে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে আগারগাঁওয়ের বেতার ভবনের পাশে তাকে হত্যা করে ফেলে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা।

শেরেবাংলা নগর থানার ওসি জানে আলম মুনশি সমকালকে বলেন, সকালে লাশ উদ্ধার করে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। লাশের গলায় গামছা পেঁচানো ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

বিষয় : চুরি নৈশপ্রহরীকে হত্যা নৈশপ্রহরী খুন

মন্তব্য করুন