চলতি ২০২০-২০২১ করবর্ষের আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়সীমা বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছে ঢাকা ট্যাকসেস্ বার অ্যাসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ ট্যাক্স ল’ইয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএলএ)। নেতারা বলেছেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে অনেকেই নির্ধারিত সময়ে ২০২০-২০২১ করবর্ষের আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে পারেননি। তাই আয়কর অধ্যাদেশের ১৮৪জি ধারার বিধানমতে এর সময়সীমা বর্ধিত করা প্রয়োজন।

সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে সংগঠন দু’টির যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানানো হয়। এতে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন ঢাকা ট্যাকসেস্ বার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মুস্তাফিজুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন বিটিএলএ’র আহবায়ক অ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিন, সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট খোরশেদ আলম এবং ঢাকা ট্যাকসেস্ বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি একেএম আজিজুর রহমানসহ দুই সংগঠনের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যরা, সাবেক সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকরা এবং নবীন-প্রবীণ আইনজীবীরা।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, আয়কর অধ্যাদেশের ১৮৪জি ধারায় সুষ্পষ্ট বিধান থাকা সত্ত্বেও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কতিপয় কর্মকর্তা-কর্মচারী ২০২০-২০২১ করবর্ষের আয়কর রিটার্ন জমা রাখতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছেন। এক্ষেত্রে করোনা মহামারির দুর্যোগকেও বিবেচনায় আনা হচ্ছে না। এতে জাতীয় অর্থনীতিতে রাজস্ব আহরণে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হচ্ছে। সেই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী ও সরকারের ভাবমূর্তিও ক্ষুণ্ন হচ্ছে।

এতে আরও বলা হয়, করোনাজনিত কারণে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড গত ২০১৯-২০২০ করবর্ষের আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়সীমা গত বছরের সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত বর্ধিত করেছিল। আয়কর অধ্যাদেশের ১৮৪জি ধারার ক্ষমতাবলেই এটা করা হয়েছিল। তাই আয়কর আইনজীবীদের পক্ষ থেকে এ বছরও আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময়সীমা অন্তত আগামী সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত বর্ধিত করার অনুরোধ জানানো হচ্ছে।