জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির নেতারা বলেছেন, করোনা পরিস্থিতি ভয়ংকর বিপর্যয়ের আকার ধারণ করেছে। গ্রামগঞ্জে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে। সংক্রমণ শনাক্ত ও মৃত্যু আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। এই ভয়ংকর বিপর্যয় মোকাবিলায় দ্রুত স্থানীয় পর্যায়ে উদ্যমী যুবক ও তরুণদের সমন্বয়ে 'ভলান্টিয়ার বাহিনী' গড়ে তুলতে হবে। 

বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে দলটির সভাপতি আ স ম আবদুর রব ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ছানোয়ার হোসেন তালুকদার এসব কথা বলেন।

বিবৃতিতে দলের পক্ষ থেকে ৬ দফা প্রস্তাবনা তুলে ধরে নেতারা বলেন, অনেক ক্ষেত্রেই লোকজন করোনা উপসর্গ নিয়ে অসুস্থ হচ্ছেন কিন্তু সবাইকে চিকিৎসার আওতায় আনা সম্ভব হচ্ছে না। এতে সামাজিক পর্যায়ে ঘাতক করোনার অবাধ বিস্তার ঘটছে। এটি অব্যাহত থাকলে বিপজ্জনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে। এ থেকে মুক্তির জন্য দলমত নির্বিশেষে ব্যাপক জনগোষ্ঠীকে করোনা মোকাবিলায় সম্পৃক্ত করতে হবে।

প্রস্তাবনার মধ্যে আছে- স্থানীয় সরকারের অধীনে সব এলাকা ও অঞ্চলের জন্য সুনির্দিষ্ট সংখ্যক ভলান্টিয়ার নিয়োগ করতে হবে, ভলান্টিয়ারদের দ্রুত সংক্ষিপ্ত ওরিয়েন্টেশন এবং ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করতে হবে, ভলান্টিয়াররা করোনা নিয়ন্ত্রণে চিকিৎসা ও টিকাদানসহ সম্ভাব্য সব সেবা দিতে সচেষ্ট হবেন, গণসচেতনতা, প্রচার-প্রচারণাসহ যাবতীয় তথ্য-উপাত্ত ভলান্টিয়ার বাহিনী জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেবেন, ভলান্টিয়াররা কর্মহীন, দরিদ্র ও অসহায় মানুষের খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত করবেন এবং জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ, জাতীয় টেকনিক্যাল কমিটি ও বিভিন্ন অংশীজনের সঙ্গে আলোচনা করে সরকার ভলান্টিয়ার বাহিনীর কর্মপদ্ধতি চূড়ান্ত করবে।