রাজধানীর মিটফোর্ড এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ দেশি-বিদেশি নামিদামি কোম্পানির নকল ওষুধ ও ক্রিম উদ্ধার করা হয়েছে। নকল পণ্য মজুদ ও বিক্রির অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তিনজনকে।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন- ফয়সাল আহমেদ, লিটন গাজী ও সুমন চন্দ্র মল্লিক। গত শনিবার তাদের গ্রেপ্তার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। রোববার মিন্টো রোডে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ডিবির দক্ষিণের যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ী মিটফোর্ডের পাইকারি ওষুধ মার্কেটের বিভিন্ন দোকানে নিষিদ্ধ এবং জীবন রক্ষাকারী দেশি-বিদেশি ব্র্যান্ডের নকল ওষুধ ও ক্রিম বিক্রি করছে এমন তথ্য পায় গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগ। এর পরই ওষুধ অধিদপ্তরের সহায়তায় মিটফোর্ডের সুরেশ্বরী মেডিসিন প্লাজার নিচতলার মেডিসিন ওয়ার্ল্ড ও অলোকনাথ ড্রাগ হাউস এবং হাজী রানী মেডিসিন মার্কেটের নিচতলায় রাফসান ফার্মেসিতে অভিযান চালানো হয়। এসব প্রতিষ্ঠান বিপুল পরিমাণ নকল ওষুধ ও ক্রিম জব্দ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, মিটফোর্ড মার্কেটটি ওষুধের পাইকারি বাজার। এখান থেকেই দেশে নকল ওষুধ ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। গ্রেপ্তার তিনজন এই মার্কেটের পাইকারি ব্যবসায়ী। অধিক মুনাফার লোভে তারা এসব করে আসছিলেন। সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে ডিবির এই কর্মকর্তা বলেন, ওষুধ কেনার আগে সেটি রেজিস্টার্ড কিনা তা দেখতে হবে। নকল ওষুধ উৎপাদন, মজুদ ও বাজারজাতকারীদের শনাক্ত করে তাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।