কক্সবাজারের ঝিলংজায় বনভূমির ৭০০ একর জায়গা প্রশাসন একাডেমির জন্য বরাদ্দের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়েছে বিভিন্ন পরিবেশবাদী ও সমাজিক সংগঠন।

সোমবার ১৩টি সংগঠনের পক্ষে ইয়ুথ এনভায়রনমেন্ট সোসাইটির (ইয়েস) প্রধান নির্বাহী ইব্রাহিম খলিল উল্লাহ মামুন এক বিবৃতিতে বলেন, প্রশিক্ষণ একাডেমির জন্য জমি বন্দোবস্তের বিরোধীতা করেছে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। সংবিধান ও প্রচলিত আইনের আলোকে সংসদীয় কমিটি সঠিক ও সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ জন্য সংসদীয় কমিটিকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, বন বিভাগের আপত্তি ও সংসদীয় কমিটির সিদ্ধান্ত মেনে অন্য স্থানে ও পরিমিত পরিমাণ ভূমিতে প্রশিক্ষণ একাডেমি নির্মাণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা দরকার। এতে সংবিধান, আইন, আদালতের আদেশ, রায় ও সর্বোপরি জনমতকে প্রাধান্য দেওয়া হবে।

এ দিকে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় (খুবি) ফরেস্ট্রি অ্যান্ড উড টেকনোলোজি ক্লাবের (ফউটেক) আহ্বায়ক আহসান রাজিব প্রমি স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বন বিভাগের জমি ভূমি মন্ত্রণালয় বরাদ্দ দেওয়ার যৌক্তিকতা নেই। বাংলাদেশে বনভূমির পরিমাণ প্রয়োজনের চেয়ে অর্ধেকেরও কম। এভাবে বনভূমি হারানো দেশের অর্থনীতি এবং পরিবেশের জন্য হুমকি।