রাজধানীর জুরাইন এলাকায় একটি বাসায় স্বামীর এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে শিরীন আকতার (৪৩) নামের এক নারী নিহত হয়েছেন। সোমবার রাতের এ ঘটনায় তাকে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ ওই নারীর স্বামী লিটু কাজীকে আটক করেছে।

স্বজনদের উদ্ধৃত করে পুলিশ জানায়, শিরিন ও লিটু দুই মেয়ে ও এক ছেলে নিয়ে জুরাইনের নতুন শ্যামপুর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। সোমবার রাতে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী-স্ত্রীর বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে লিটু স্ত্রীকে ছুরি দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন। প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে শিরীনকে উদ্ধার করে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ও মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কদমতলী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সজীব কুমার দে জানান, অভিযুক্ত লিটু কাজীকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি বলেছেন, পারিবারিক কলহে তিনি এমন কাণ্ড করেছেন। কী নিয়ে কলহ তা জানার চেষ্টা চলছে।

তিনি আরও জানান, হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরিটি জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।