বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান মাদক মামলায় গ্রেপ্তারের পর বর্তমানে আর্থার রোড কারাগারে বন্দি। তার জামিনের জন্য আবেদন করা হলেও এখন পর্যন্ত সফলতা পাওয়া যায়নি। এরই মধ্যে জানা গেছে জেলে বই পড়ে সময় কাটাচ্ছেন শাহরুখপুত্র।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, জেলের জীবনযাত্রার সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নিতে পারছেন না আরিয়ান। বিশেষ কথাও বলছেন না কারও সঙ্গে। বই পড়েই সময় কাটাচ্ছেন তিনি। জেলের গ্রন্থাগার থেকে দু’টি বই ধার নিয়েছেন আরিয়ান— ‘গোল্ডেন লায়ন’ নামের একটি উপন্যাস এবং রাম-সীতা সংক্রান্ত গল্পের একটি বই।

আদালতে জামিনের আবেদন খারিজ হয়ে যাওয়ায় মানসিক ভাবে ভেঙে পড়েন আরিয়ান। তখনই তাকে বই পড়ে সময় কাটানোর পরামর্শ দেওয়া হয়।

জেলের গ্রন্থাগারে বিভিন্ন ধর্মীয় এবং অনুপ্রেরণামূলক বই থাকে। এ ছাড়াও ভারতের হাজতবাসীরা আত্মীয়দের থেকে বই আনাতে পারেন। কিন্তু সেগুলি ওই নির্দিষ্ট দু’টি বিষয়ের মধ্যে যে কোনও একটি হতে হবে।

গত ৩ অক্টোবর, ভারতের নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর আঞ্চলিক কর্মকর্তা সমীর ওয়াংখেড়ের নেতৃত্বে অভিযানে প্রমোদতরী থেকে মাদক সহ গ্রেপ্তার করা হয় আরিয়ান খানকে। তারকা পুত্রের বিরুদ্ধে মাদক সেবন সহ অন্যান্য ধারায় অভিযোগ আনা হয়। তারপর থেকে একাধিকবার জামিনের  আবেদন নাকচ  হয়ে আসছে আরিয়ানের।

এরইমধ্যে একদিন ভিডিও কলে বাবা-মায়ের সঙ্গে কথা বলতে গিয়েও রীতিমতো ভেঙ্গে পড়েন ছেলে। ছেলের পছন্দের খাবার বা অন্য কোনও প্রয়োজন মেটানোর জন্য সাড়ে চার হাজার টাকা আর্থার রোড জেল কর্তৃপক্ষকে পাঠিয়েছেন শাহরুখ-গৌরী। কোনও বন্দির ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য পরিবারের তরফ থেকে সর্বাধিক এই পরিমাণ টাকাই পাঠানো যায় দেশটির জেলে।