ঢাকা বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য প্রতিবাদী কণ্ঠ ছিলেন অধ্যাপক আজাদ

স্মরণসভায় বক্তারা

মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য প্রতিবাদী কণ্ঠ ছিলেন অধ্যাপক আজাদ

জাতীয় প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ছবি: সমকাল

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩ | ২০:৩৩

বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ পাটোয়ারীকে শ্রদ্ধা জানিয়ে স্মরণসভা করেছে সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম-মুক্তিযুদ্ধ ’৭১। আজ শনিবার রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সদ্যপ্রয়াত শিক্ষাবিদ অধ্যাপক আজাদ ছিলেন স্পষ্টভাষী। ছিলেন ভালো সংগঠকও। রণাঙ্গনের এই যোদ্ধাকে নিয়ে কথা বলতে হলে ১৯৬৬ থেকে শুরু করে ঊনসত্তর, একাত্তর ও স্বাধীনতা-পরবর্তী জীবন নিয়ে কথা বলতে হয়। কারণ, মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধার প্রতি যেখানেই অবজ্ঞা দেখেছেন সেখানেই প্রতিবাদ জানিয়েছেন তিনি। 

আয়োজক সংগঠনের কার্যনির্বাহী সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ নূরুল আলমের সভাপতিত্বে স্মরণসভায় বক্তব্য দেন সংগঠনের মহাসচিব হারুন হাবীব, পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হক, নাট্যব্যক্তিত্ব ম. হামিদ, নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) এ কে মোহাম্মদ আলী শিকদার, সংগঠনের ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান এরশাদসহ ঢাকা মহানগর, বিভিন্ন জেলা, উপজেলা পর্যায়ের নেতারা।

সভাপতির বক্তব্যে নূরুল আলম বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে কয়জন ছাত্রনেতাকে বক্তব্যের জন্য পছন্দ করতেন তাদের অন্যতম ছিলেন আবুল কালাম আজাদ। তিনি ছিলেন স্পষ্টভাষী মানুষ, আপাদমস্তক একজন দেশপ্রেমিক। 

হারুন হাবীব বলেন, আমরা একজন বীর দেশপ্রেমিককে হারিয়েছি। যারা দেশ ও জাতির জন্য কাজ করেন, তারা অমর হয়ে থাকেন।

আরও পড়ুন

×